দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসনিজেদের গালি দিলে বিশ্ব কেন আমাদের গুরুত্ব দেবে: মোদি

বিদেশ ডেস্ক১৮:৫৯, মার্চ ১২, ২০১৬

বেশ কয়েকটি গুরুতর আইনী বাধা ও হঠাৎ বৃষ্টির পরও দিল্লিতে যমুনার পাড়ে শুরু হয়েছে শ্রী শ্রী রবি শংকরের আর্ট অব লিভিং ফাউন্ডেশনের বিশ্ব সংস্কৃতি উৎসব। এতে অংশ নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ভারতের দিকে কেউ মনোযোগ দেবে না যদি আমরা (ভারতীয়) নিজেরা একে অপরকে দোষারোপ করতে থাকি।
শুক্রবার সংস্কৃতি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে প্রায় দুই ঘণ্টা সময় কাটান মোদি। বক্তব্যে তিনি বলেন, ভারতের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রয়েছে যাতে সারাবিশ্ব নজর রাখে। বিশ্বজুড়ে কিছু কিছু ক্ষেত্রে আমাদের সংস্কৃতির গুরুত্বে আমরা সন্তুষ্ট হতে পারি। কিন্তু এটা কেবল তখনি সম্ভব যখন আমরা নিজেদের সংস্কৃতি নিয়ে গর্ববোধ করতে পারব।
মোদি বলেন, আমরা যদি নিজেরা একে অপরের দোষ ধরতে থাকি সারাক্ষণ, নিজেদের সবকিছুতেই আমরা সমালোচনা করে বেড়াই, তাহলে বিশ্ব কেন আমাদের দিকে নজর দেবে।
তিনি আরও বলেন, ৩৫ বছরের অভিজ্ঞতায় বিশ্বের সব দেশকেই আপন করে নিয়েছেন রবিশঙ্কর। এ তো দেখছি সংস্কৃতির কুম্ভমেলা।

শুক্রবার এ অনুষ্ঠান শুরু করতে পরিবেশ আদালতের ধার্য্য করা ৫ কোটি রুপি জরিমানার ২৫ লাখ রুপি জমা দিতে হয়েছে। বাকি টাকা জমা দিতে আদালতের কাছে তিন সপ্তাহ সময় চেয়েছেন আয়োজকরা।

বিকালে দিল্লিজুড়ে প্রচণ্ড বৃষ্টির কারণে ধরে নেওয়া হয়েছিল ভেস্তে যাবে এ উৎসব। কিন্তু বৃষ্টি মাথায় নিয়েই একে একে অনুষ্ঠানে প্রবেশ করেন শিল্পী- দর্শকরা। পৌনে পাঁচটার দিকে জমেও ওঠে অনুষ্ঠান। বৃষ্টির ধারা একটু কমতেই জনস্রোত প্রবেশ করে যমুনার পাড়ে। 

অনুষ্ঠানের শুরুতে বেদপাঠে অংশ নেন বিভিন্ন রাজ্য থেকে আসা ১০৫০ পণ্ডিত। এরপর মূল মঞ্চের সামনে সবুজ কার্পেটে শুরু হয়ে ১৭০০ শিল্পীর কত্থক নৃত্য। নাচ শেষ হতেই বিভিন্ন রাজ্য থেকে আসা আট হাজারের বেশি যন্ত্রশিল্পীর পরিবেশনা। 

অনুষ্ঠান দর্শকদের নজর কেড়েছে দক্ষিণ ভারত থেকে আসা দেড় হাজারেরও বেশি নৃত্যশিল্পীর ভরতনাট্যম। অনুষ্ঠানের শেষে এই নৃত্যানুষ্ঠানের পরিচালককে পুরস্কৃত করেছেন উদ্যোক্তারা। ল্যাটিন সঙ্গীতে অনুষ্ঠান মাতিয়েছেন আর্জেন্টিনা থেকে আসা ৫০০ জন গায়ক। উৎসবটি চলবে রবিবার পর্যন্ত।

/এএ/

লাইভ

টপ