Vision  ad on bangla Tribune

চলছে চায়ের জমজমাট বিকিকিনি

হাসনাত নাঈম১৬:১৭, জানুয়ারি ১৪, ২০১৭

কেকে টি স্টল দেশে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ চা বোর্ডের আয়োজনে তিন দিনের ‘বাংলাদেশ চা প্রদর্শনী ২০১৭’। বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে চলছে এই আয়োজন। চা প্রদর্শনীতে ১৬টি স্টল ও ৩০টি প্যাভিলিয়ন আছে। প্রায় প্রতিটি স্টলে আছে ফ্রি চা পানের সুযোগ। প্রদর্শনীর পাশাপাশি বিভিন্ন ছাড়ে চলছে চা বিক্রিও।

কাজী অ্যান্ড কাজী টি স্টল এসেছে তাদের জমজমাট ৫টি ফ্লেভার নিয়ে। স্টলে প্রবেশেই পাচ্ছেন পাঁচটি ফ্লেভার পান করার সুযোগ। শুধু পান নয় বিশেষ ডিসকাউন্টে পাচ্ছেন মনমতো চা কেনার সুযোগ। সব মিলিয়ে এই চা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান এনেছে ১৬ রকমের প্যাকেটজাত পণ্য। সবগুলো ফ্লেভারের 'টি ব্যাগ বক্সে' পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া রয়েছে ৬০ গ্রামের বিশেষ বাক্স। এছাড়াও ১০০ ও ২০০ গ্রামের পলি প্যাকে রয়েছে।

ম্যাগনোলিয়া

প্রদর্শনীতে এইচ.আর.সি তাদের ১১টি আইটেমের প্রদর্শন করছে। সর্বোনিম্ন ১০ গ্রাম থেকে সবোর্চ্চ ১ কেজি পর্যন্ত চায়ের প্যাকেটও বিক্রি করছে তারা।

ম্যাগনোলিয়া চা তাদের ২টি আইটেমের প্রদর্শন করছে। সর্বনিম্ন ১০ গ্রাম থেকে সবোর্চ্চ ৫০০ গ্রাম পর্যন্ত চায়ের প্যাকেটও বিক্রি করছে তারা।

সিমলা প্রিমিয়াম টি ১টি আইটেমের চা প্রদর্শনের পাশাপাশি ৫০ থেকে ৪০০ গ্রাম চা প্যাকেট বিক্রয় করছে।

ইস্পাহানি চা কোম্পানি তাদের ৯ রকমের চা প্রদর্শন করছে। ২৫ শতাংশ ছাড়ে ১০ থেকে ৫০০ গ্রামের চায়ের প্যাকেট বিক্রয় করছে তারা।

বাংলাদেশ চা বোর্ডে রয়েছে ৪ ধরনের চা। এছাড়া আট ধরনের চা নিয়ে এসেছে ‘বাংলাদেশ চা’।  বাংলাদেশ চা গবেষণা ইন্সটিটিউট ৪০ রকমের চা প্রদর্শন করছে।

ফ্রেশ চা ৫টি আইটেমের চা প্রদর্শন করছে। ৫০ থেকে ৫০০ গ্রাম পর্যন্ত চায়ের প্যাকেট বিক্রয় করছে তারা।

এইচআরসি

ন্যাশনাল চা কোম্পানি লিমিটেড ৩ রকমের চা প্রদর্শন ও বিক্রি করছে। সিলন চা ৪ রকমের চা প্রদর্শন করছে। পাশাপাশি ২০০ থেকে ৪০০ গ্রামের প্যাকেট চা তে ১০% ছাড়ে বিক্রি চলছে।

শুধু চা নয়, চায়ের সঙ্গের উপাদান অর্থাৎ দুধ, টিমেট, কনডেন্স মিল্কও পাওয়া যাচ্ছে এই উৎসবে।

/এফএএন/

samsung ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ