লাল মরিচের ৭ গুণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক১৫:৫৩, মার্চ ২১, ২০১৭

লাল মরিচপ্রিয় খাবারের মধ্যে বাঙালিদের অনেকেই ভাজা শুকনা মরিচ বা লাল মরিচের কথা উল্লেখ করেন। পোড়া মরিচ দিয়ে ভর্তা বানিয়ে সেটা দিয়ে ভাত, আহা নির্ঘাত আপনার জিভে জল। কেউ একটু ডিম ভেজে নেবেন, কেউ মাছ, কেউ আবার ঘি ভাতে পোড়া মরিচ নেবেন।

কাঁচা বা সবুজ মরিচও কম যায় না। মোট কথা খাবার হবে ঝোলে-ঝালে। তবে আপনি যদি এসিডিটির শিকার হয়ে থাকেন কাঁচা মরিচ, শুকনা মরিচ, তেল, ঝাল সবই আপনার জন্য পরিমিত, ক্ষেত্র বিশেষে নিষিদ্ধ।

তবে শুকনা মরিচের ৭টি দারুণ গুণের কথা জেনে নিন-

১) লাল মরিচের ক্যাপসাইসিন উপাদান আপনাকে মোটা হওয়া থেকে রুখবে, যত বেশি শুকনা মরিচ তত শুকনা!

২)খিদে কমাবে। এই ক্যাপসাইসিন উপাদানটি আপনার ক্ষুধা কমিয়ে আনবে। সবসময় একটি পেট ভরা অনুভূতি কাজ করবে।

৩)উচ্চরক্ত চাপ কমাতেও একটি ভালো ভূমিকা পালন করবে এই মরিচ। এর অন্যতম উপাদান আঁশ যা রক্ত সঞ্চালনে সহায়তা করে।

৪) হজম শক্তি বাড়ায়। আঁশ জাতীয় খাবার হওয়ার কারণে হজম বাড়ে।

৫) গিটে গিটে ব্যথা কমায়, মরিচে থাকা ভিটামিন-ই ব্যাথা কমানোর কাজ করে।

৬) লাল মরিচে থাকা ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস কোলন ক্যান্সার ও স্তন ক্যান্সার রোধে কাজ করে।

৭)লাল মরিচে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন এ থাকায় এটি দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধি করতেও কাজ করে।

তবে এত গুণ শুনে এখনি গাদা গাদা লাল মরিচ নিয়ে বসে যাবেন না প্লীজ। প্রতিদিনের ডায়েটে ২/৩টে লাল মরিচই যথেষ্ট।

/এফএএন/

লাইভ

টপ