সোলসের গানে পর্দা নামলো বাংলাদেশ চা প্রদর্শনীর

Send
হাসনাত নাঈম
প্রকাশিত : ১০:০০, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৯, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৮

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হলো ‘বাংলাদেশ চা প্রদর্শনী-২০১৮।’ এর আগে ১৮ ফেব্রুয়ারী রাজধানীর আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরার পুষ্পগুচ্ছ হলে তিন দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশে দ্বিতীয়বারের মত অনুষ্ঠিত হলো এ প্রদশর্নী।

শেষ দিন ছিল দর্শনার্থীদের ভিড়
শেষের দিন পুষ্পগুচ্ছ হল ছিল দর্শনার্থীতে কানায় কানায় পূর্ণ। প্রতিটি স্টলের সামনে ভিড় ছিলো চোখে পড়ার মত। বিশেষ করে বিকেল থেকে কাজী অ্যান্ড কাজী টি স্টলের সামনে লাইন পড়ে ছিল তাদের নতুন দুটি চা টেস্ট করার জন্য। আর সন্ধ্যায় ইস্পাহানি চা তাদের নতুন একটি ব্ল্যাক টি'র মোড়ক উন্মোচন করেছে। অন্যদিকে দর্শকদের মাতিয়ে রাখার জন্য মঞ্চে নৃত্য পরিবেশন করে বান্দরবান কালচারাল গ্রুপ ও শ্রীমঙ্গল কালচারাল গ্রুপ। আর তাতে ফুটিয়ে তোলা হয় তাদের নিজস্ব সংস্কৃতি।

‘চায়ের আড্ডা: বাংলা সাহিত্যের চা’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান
এরপর মঞ্চে শুরু হয় ‘চায়ের আড্ডা: বাংলা সাহিত্যের চা’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। সঙ্গীতশিল্পী জুয়েলের সঞ্চালনায় এতে অংশগ্রহণ করেন আবৃতিকার শিমুল মুস্তফা, উপস্থাপিকা শারমিন লাকী ও সঙ্গীতশিল্পী রিয়াদ। এক ঘন্টার আলোচনা অনুষ্ঠানে চা নিয়ে নিজেদের অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে বিভিন্ন গল্প করেন অতিথিরা। গল্পের পাশাপাশি দর্শকদের গান ও কবিতা আবৃতি করে শুনান তারা।

সোলসের পরিবেশনা
রাত সাড়ে ৯টায় মঞ্চে ওঠে ব্যান্ড সোলস। এ এমন পরিচয়, মন শুধু মন ছুয়েছে, বন্ধু মিস করছি ভীষণ, বাঁশি শুনে আর কাজ নেই, মুখরিত জীবনের, কেন এই নিঃসঙ্গতাসহ বেশ কিছু গান গেয়ে দর্শকদের মাতিয়ে রাখে অনুষ্ঠানের শেষ পর্যন্ত। সোলসের পরিবেশনার মধ্য দিয়ে শেষ হয় বাংলাদেশ চা প্রদশর্নী ২০১৮।

পেট্রোকেম গ্রুপকে পুরস্কৃত করা হয়
প্রদর্শনীর শেষ দিনে বাংলাদেশ চা বোর্ড পেট্রোকেম গ্রুপকে সেরা স্টল ঘোষণা করে।
‘বাংলাদেশ চা প্রদশর্নী ২০১৮’ আয়োজনের প্রচার সহযোগী হিসেবে ছিল বাংলা ট্রিবিউন, রেডিও ফুর্তি ও জিটিভি।

/এনএ/

লাইভ

টপ