কীভাবে বুঝবেন ত্বকের ধরন?

Send
লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৫:৪০, জুলাই ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৪০, জুলাই ১২, ২০১৯

ত্বকের ধরন বুঝে যত্ন নেওয়া যেমন জরুরি, তেমনি যেকোনও প্রসাধনী ব্যবহারের আগেও জানা চাই আপনার ত্বক তৈলাক্ত নাকি শুষ্ক। মিশ্র বা সংবেদনশীল ত্বকেরও রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন যত্ন। জেনে নিন কীভাবে বুঝবেন আপনার ত্বক কোন ধরনের।


তৈলাক্ত ত্বক
ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খাওয়ার পর আঙুলের যেমন অবস্থা হয়, একই রকম অবস্থা ত্বকের হলে বুঝতে হবে তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারী আপনি। এ ধরনের ত্বক চকচক করে বেশিরভাগ সময়। ঘাম বেশি হয়, ধুলাবালিও বেশি জমে। লোমকূপে তেল ও ময়লা জমে সৃষ্টি হয় ব্ল্যাক ও হোয়াইটহেডস। তৈলাক্ত ত্বকে ব্রণের প্রকোপও বেশি দেখা যায়।
শুষ্ক ত্বক
প্রাণহীন ও খটখটে ত্বক আপনার? প্রায়ই ত্বক ফেটে মরা চামড়া জমে থাকে? তবে আপনার ত্বকের ধরন শুষ্ক। এ ধরনের ত্বক যাদের, তাদের জন্য শীতকাল দুঃস্বপ্নের মতোই! কারণ শীতে শুষ্ক ত্বক আরও বেশি রুক্ষ ও প্রাণহীন হয়ে পড়ে। ফেটেও যায় দ্রুত।
মিশ্র ত্বক
নাক, নাকের আশেপাশের অংশের ত্বক কিংবা কপালের অংশ নির্দিষ্টভাবে শুষ্ক বা তৈলাক্ত হলে আপনার ত্বকের ধরন মিশ্র। এ ধরনের ত্বক সাধারণত সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর তেলতেল করে।


স্বাভাবিক ত্বক
শুষ্ক ও তৈলাক্ত ত্বকের মাঝামাঝি যাদের ত্বকের ধরন, তারাই ভাগ্যবান। কারণ তাদের ত্বকের ধরন স্বাভাবিক। এ ধরনের ত্বকে সাধারণত বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয় না। প্রাকৃতিকভাবেই স্বাস্থ্যোজ্জ্বল থাকে স্বাভাবিক ত্বক।  
সংবেদনশীল ত্বক
আবহাওয়া বদল বা সূর্যের তাপে যদি নিমিষেই ত্বক যুদ্ধ ঘোষণা করে, তবে বুঝতে হবে আপনার ত্বক সংবেদনশীল। এ ধরনের ত্বকে খুব সহজেই লালচে হয়ে ফুসকুড়ি ওঠে। সংবেদনশীল ত্বকে সবসময় কেমিক্যালহীন প্রসাধনী ব্যবহার করুন। ভেষজ বা মাইল্ড ধরনের প্রসাধনী ব্যবহারে সংবেদনশীল ত্বক সুস্থ থাকে। 

/এনএ/

লাইভ

টপ