behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

বিসিএস দিচ্ছেন তো?

লাইফস্টাইল ডেস্ক১৪:২৫, জানুয়ারি ০৭, ২০১৬

বিসিএস প্রস্তুতি

আজ রাত পোহালেই কাল ৩৬তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা। অসংখ্য মানুষ চাকরি জীবনের প্রথম পরীক্ষায় অংশ নিতে যাচ্ছেন। শেষ মুহূর্তে আর কোনও প্রস্তুতি নেওয়ার নেই। এখন শুধুই অপেক্ষা পরীক্ষা হলে গিয়ে অংশ নেওয়ার। এই মুহূর্তে কি করতে পারেন আপনি? খুব ঠাণ্ডা মাথায় তৈরি হোন।

অনেক কিছু নেওয়া যাবে না পরীক্ষার হলে। সেগুলো মাথায় রেখে আজকেই হাত ব্যাগটি গুছিয়ে রাখুন। অ্যাডমিট, কলম ছাড়া আর বাড়তি কিছু একদমই না নেওয়া ভালো। কারণ হাতঘড়িটিও বিসিএস পরীক্ষাকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া যাবে না।

আপনার পরীক্ষা কেন্দ্র যদি আপনার অপরিচিত হয় তবে আপনি জায়গাটি চেনে এমন কারও সঙ্গে যাবেন। পরীক্ষার আগে কেন্দ্র খোঁজার ঝামেলায় যাবেন না।

পরীক্ষা হলে প্রবেশ করে কারও সঙ্গে গল্প করবেন না। স্থির হয়ে বসুন। ঠাণ্ডা মাথায় উত্তরপর্বে নিজের পরিচয় লেখার স্থানটি পূর্ণ করুন।

সব প্রশ্নের উত্তর করতে যাবেন না ভুলেও! যেহেতু নেগেটিভ মার্কিং আছে সেহেতু অজানা প্রশ্ন এড়িয়ে যান। একটি কথা মাথায় রাখুন প্রিলিমিনারি হায়েস্ট মার্ক্স পাওয়ার পরীক্ষা নয়, পাস করার পরীক্ষা।

অন্ধকারে ঢিল ছুঁড়ে উত্তর দিতে যাবেনা। অংকের মতো বিষয় যদি আপনার মনে হয় হবে তাহলে উত্তর দিতে পারেন।

একটি বিষয় মাথায় রাখবেন, এ ধরনের পরীক্ষায় আত্মবিশ্বাস সবচেয়ে বেশি জরুরি। কারও কাছ থেকে ভুল প্রশ্নের উত্তর জানতে যাবেন না। একটি প্রশ্নের উত্তর নিজে ভুল করলে যতটা না মেজাজ খারাপ হয়, তার চাইতে অনেক বেশি মেজাজ খারাপ হয় কারও কাছ থেকে শুনে ভুল করলে। তাই কারও সঙ্গে আলোচনা করে উত্তর দিতে যাবে না।

প্রশ্নে দুয়েকটা ছোট-খাটো ভুল থাকতেই পারে। এটা নিয়ে মাথা খারাপ করার কিছু নেই। সমস্যা হলে তো সবারই হবে, আপনার একার নয়!

নার্ভাসনেস দূর করে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে পরীক্ষা দিন। আর আজ রাতে খুব বেশি বই-পুস্তক না ঘেঁটে একটু রিলাক্স থাকার চেষ্টা করুন।

পরীক্ষার্থীদের জন্য শুভকামনা থাকলো।

/এফএএন/

Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ