behind the news
Rehab ad on bangla tribune
Vision Refrigerator ad on bangla Tribune

সুরক্ষিত থাকুক কাঠের আসবাব

সোহেলী সায়মা সেঁজুতি১৭:৪৫, জানুয়ারি ২১, ২০১৬

যত্নে থাকুক কাঠের আসবাব কাঠের আসবাবের রয়েছে আলাদা ঐতিহ্য। সঠিক যত্ন নিতে পারলে বহু বছর পর্যন্ত ভালো থাকে কাঠের আসবাব। জেনে নিন কাঠের আসবারের যত্নআত্তি সম্পর্কে- 

সময়ের সাথে সাথে এবং প্রতিদিনের ব্যবহারের ফলে কাঠের আসবাবে দাগ পড়ে যায়। অনেক সময় ছোপ ছোপ দাগের ফলে দেখতে বেশি পুরনো লাগে। আবার অনেক সময় একাধিক ধরনের কাঠ মিশিয়ে আসবাবপত্র তৈরি করা হয়। ফলে আসবাবের কোনও অংশ হয়তো তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যায় বা পোকা ধরে। এমন হলে আসবাবটি ফেলে দেবেন না। ক্ষতিগ্রস্ত অংশটি কেটে ফেলে দিয়ে সেখানে নতুন কাঠ লাগিয়ে নিন। এতে জিনিসটি ব্যবহার করতে পারবেন আরো অনেকদিন।

  • কাঠের জিনিসের অন্যতম সমস্যা হলো পোকা ধরা। পোকামাকড়ের উপদ্রব হলে সেই ফার্নিচার আলাদা করে রাখুন। এরপর ব্যবস্থা নিন। ফার্নিচারে যাতে পোকামাকড়ের উপদ্রব না হয় সে জন্য ছয় মাস পরপর নিম তেল স্প্রে করুন। পোকামাকড়ের আক্রমণ কমাতে নারিকেল তেলের সঙ্গে কর্পূর মিশিয়ে আসবাবের কোণায় দিয়ে দিন। পোকা মারার স্প্রেও ব্যবহার করতে পারেন। আর যদি পোকার প্রকোপ খুব বেশি হয়, তাহলে পোকা মারা বা পেস্টিংয়ের প্রফেশনাল কোনো এজেন্সির সাহায্য নিতে পারেন।
  • কাঠের আসবাবপত্রে কখনও পানিজাতীয় কিছু রাখা যাবে না। কোন ভেজা কাপড় কাঠের আসবাবের উপর রাখলে কাঠে এক প্রকার সাদা দাগ বসে যায়, যা পরবর্তীতে পরিষ্কার করা কঠিন হয়ে পড়ে। কাঠের আসবাবপত্র সব সময় শুকনো কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করুন। অনেক সময় কাঠের জিনিস মুছতে গিয়ে তাতে আঁচড়ের দাগ পড়ে যায়। এই দাগ তুলতে সামান্য বেকিং সোডার সঙ্গে পানি মিশিয়ে নিয়ে তাতে একটি নরম কাপড় ভিজিয়ে দাগের জায়গাটি মুছে দিন।

কাঠের আসবাব

  • কাঠের আসবাবপত্র ধুলাবালি থেকে দূরে রাখুন। এজন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন পাতলা কোন কাপড়। অল্প ময়লাযুক্ত কাঠের জিনিস পরিষ্কার করার জন্য তেল ব্যবহার করতে পারেন। এতে আসবাবের উজ্জ্বলতা ঠিক থাকবে। আসবাব বেশি ময়লা হলে পরিষ্কার করুন সাবান এবং গরম পানির মিশ্রণ দিয়ে। একটি পাতলা কাপড় মিশ্রণ ডুবিয়ে মুছে ফেলুন কাঠের উপরের ময়লা।
  • সিগারেটের ছাই পড়ে দাগ হলে স্ক্র্যাচ কনসিলিং পলিশ ব্যবহার করুন। গরম জিনিস রাখার ফলে কাঠের টেবিলে অনেক সময় সাদা সাদা 'হিট স্টেইন' পড়ে যায়। এই সাদা দাগের ওপর টুথপেস্ট ও বেকিং সোডা মিশিয়ে হালকা ঘষে লাগিয়ে রাখুন। কিছুক্ষণ পর তুলে ফেলুন। এভাবে কয়েকবার মিশ্রণটি ব্যবহার করলে সাদা দাগ অনেকখানি কমে যাবে। কাঠের ডাইনিং টেবিলে সবসময় টেবিল ম্যাট, রানার ও কোস্টার ব্যবহার করুন।  কাঠের টেবিলে পানি পড়লে অনেক সময় দাগ হয়ে যায়। একটি নরম কাপড়ে মেয়নেজ দিয়ে জায়গাটা মুছে নিন। ঘণ্টাখানেক পর ভেজা কাপড় দিয়ে জায়গাটা মুছে ফেলুন। দাগ উঠে গিয়ে টেবিল আবার আগের মতো চকচকে হয়ে উঠবে।

কাঠের আসবাব

  • কাঠের আসবাবে মসৃণ ও চকচকে ভাবটা ধরে রাখতে অলিভ অয়েল ও লেবুর রসের মিশ্রণ তৈরি করুন। এই মিশ্রণ দিয়ে সপ্তাহে একবার আসবাবপত্র মুছুন। এতে কাঠের চকচকে ভাব থাকবে দীর্ঘদিন এবং সহজে ছোপ ছোপ দাগ পড়বে না। কাঠের জিনিসের চাকচিক্য বজায় রাখতে হলে প্রতি বছর অন্তত একবার প্রলেপ দেয়া এবং বার্নিশ করা উচিত। এতে করে আসবাবপত্রের স্যাঁতস্যাঁতে ভাব চলে যায়। প্রলেপ দেয়ার জন্য সিনথেটিক তারপিন ব্যাবহার করুন কারন প্রাকৃতিক তারপিন দিলে আসবাবপত্রে দাগের সৃষ্টি হয়।
  • আসবাব পরিষ্কার করার সময় অবশ্যই হাতে রাবার গ্লাভস ব্যবহার করুন। ব্যবহারের পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে তা সংরক্ষন করুন। এছাড়া কড়া রোদ পড়ে এমন জায়গায় কাঠের আসবাব রাখবেন না। রোদে কাঠের জিনিস ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঝড়বৃষ্টিতেও কাঠের আসবাবপত্রের ক্ষতি হয়। তাই বারান্দা বা লনে কাঠের চেয়ার-টেবিল ব্যবহার না করাই ভালো।



লেখক: ইন্টেরিওর আর্কিটেক্ট

/এনএ/  

Ifad ad on bangla tribune

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ