Vision  ad on bangla Tribune

রসুন, রসুন এবং রসুন…

সুস্মিতা খান১৭:৩৬, জানুয়ারি ২৭, ২০১৬

রসুন

 দু’দিন পরপর বাংলা ট্রিবিউনের লাইফস্টাইল পাতায় দেখবেন রসুন নিয়ে ফিচার। রসুনের গুণাবলী বলে শেষ করা যাচ্ছে না বলেই কখনও চুলের যত্নে, কখনও স্বাস্থ্যরক্ষায় কখনও ত্বকের যত্নে এর প্রয়োজনীয়তা নিয়ে লেখা হচ্ছে। পুষ্টিবিদ সুস্মিতা খানও রসুনের চিকিৎসা সংক্রান্ত গুণাবলী নিয়েই লিখলেন। আপনিই পড়ে নিন কি পরিমাণ উপকারী এই মশলাটি। রসুন বিষয়ক পুরানো লিংকগুলোও সংযুক্ত করা হলো…

অনেকের কাছেই শুনেছি রসুন গন্ধ লাগে।  হাতে কষ কষ লাগে এমনটাও বলেন অনেকে। কিন্তু রসুন ছাড়া মাংস রান্না করার কথা চিন্তা করতে পারেন? কিংবা হালের গারলিক ব্রেডের মজাদার ঘ্রাণের কথা। হিম হিম ঠাণ্ডার মাঝে এক বাটি ধোঁয়া ওঠা স্যুপ আর সাথে একটু খানি গারলিক ব্রেড। কিংবা বর্ষার সময় নরম খিচুড়ির সাথে কাঁচামরিচ আর রসুনের আচার - ইশ কি মজা, তাই না?

মজার স্বাদ তৈরির সঙ্গে সঙ্গে মারাত্মকরকম খাদ্য গুণাবলীও রয়েছে রসুনের। চিকিৎসা বিজ্ঞানের জনক বলে পরিচিত হিম্পোক্রিটস ঘা, কুষ্ঠ সারাতে, রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধ ও পরিপাকতন্ত্রের হজমজনিত সমস্যা দূর করতে রোগীদের রসুন খাওয়ার পরামর্শ দিতেন বলে প্রাচীন বই পত্রে জানা যায়। শুধু কি তাই? আজকের এই আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানেও চিকিৎসকরাও সর্দি, কাশি, জ্বর, ফ্লু, ব্রঙ্কাইটিস, কৃমি, রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ, খাদ্য পরিপাকের সমস্যাসহ লিভার ও পিত্তথলির নানা উপসর্গ দূর করতে রসুন খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

গবেষণায় জানা যায়, ব্যাকটেরিয়া ও প্রোটোজোয়ার মাধ্যমে সৃষ্ট অ্যামিবিক ডিসেনট্রি বা আমাশয় নিরাময়ের ক্ষেত্রে রসুন বেশ কার্যকরি । শুধু তাই নয়, একটি মাঝারি সাইজের রসুনে ১ লাখ আই ইউ পেনিসিলিনের সমান অ্যান্টিবায়োটিকের কার্যক্ষমতা রয়েছে, আর তাই শরীরের রোগ সংক্রমণ দূর করার জন্য একসাথে তিন কোয়া রসুন দিনে তিন থেকে চারবার চিবিয়ে খান।

উচ্চরক্তচাপ ও রক্তের কোলেস্টরলের মাত্রা কমিয়ে হৃদরোগ প্রতিরোধে রসুনের ভূমিকা অপরিসীম। গবেষণায় দেখা গেছে রসুন সেবনকারীদের রক্তের কোলেস্টেরলের মাত্রা অন্যদের চেয়ে কম এবং অ্যাসপিরিনের মতোই রসুন রক্তনালীতে রক্ত জমাটবাঁধা প্রতিরোধে সাহায্য করে। তাই রক্তের চাপ ও রক্তের কোলেস্টেরলের মাত্রা কমানোর জন্য প্রতিদিন তিন থেকে ১০ কোয়া রসুন খেতে পারেন। তা ছাড়া রসুনের পানি পান করতে চাইলে ছয়কোয়া রসুন পিষে এককাপ ঠাণ্ডা পানিতে ৬ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন এবং ভালোভাবে ছেঁকে রসুন পানি পান করুন।

একটু গন্ধ গন্ধ লাগলেও রসুনের সবচেয়ে বেশি উপকার পাওয়া যায় কাঁচা রসুন চিবিয়ে খেলে, কেননা চিবিয়ে না খেলে রসুনের রাসায়নিক উপাদান এলিসিন নির্গত হয়না। আর যেহেতু এলিসিনই হচ্ছে শক্তিশালী অ্যান্টিবায়োটিক, তাই রসুনের এই অ্যান্টিবায়োটিক ক্ষমতা কাজে লাগানোর জন্য কাঁচা রসুন চিবিয়ে খাওয়াই উত্তম।

 

তবে এতো উপকারী এই মশলাটি, যাদের শরীর থেকে রক্তপাত সহজে বন্ধ হয় না, তাদের না বেশি না খাওয়াই ভালো, কেননা রসুন রক্তের জমাট বাঁধার ক্রিয়াকে বাধা প্রদান করে, ফলে রক্তপাত বন্ধ হতে অসুবিধা হতে পারে। এছাড়া অনেকের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত রসুন খেলে এলার্জি  হতে পারে। এছাড়া রসুন খাওয়ার ফলে পাকস্থলীতে অস্বস্তি বোধ করলে রসুন খাওয়া বন্ধ রাখুন এবং চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

রসুনের যত উপকারিতা 
চুল পড়া রোধ করবে রসুন 

/এফএএন/

samsung ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ