behind the news
Rehab ad on bangla tribune
Vision Refrigerator ad on bangla Tribune

কুড়মুড়ে মাছ ভাজা

লাইফস্টাইল ডেস্ক১৮:২৩, মার্চ ২৪, ২০১৬

মাছ ভাজা

মাছ ভাজার তো কতরকম নিয়ম কানুন আছে। কেউ অল্প সেঁকে মাছ ভাজেন, কেউ কয়লায় পোড়ান, কেউ গরম পানিতে সেদ্ধ করে ভাজেন। তবে যারা কাঁটা বেছে খাওয়ার ভয় পান তারা কিন্তু মাছ মুচমুচে করে ভাজেন। একদম বিস্কুট ভাজি বলা চলে এটিকে। আজকে বাংলা ট্রিবিউন আপনাকে দিচ্ছে মাছের বিস্কুট ভাজি’র রেসিপি। একদম কুড়মুড়ে। আপনার বাচ্চাদের মাছ খাওয়া শেখাতে এই পদ্ধতিতে মাছ ভেজে দেখতে পারেন। তবে এইভাবে রান্না করলে খাদ্যগুণ নষ্ট হওয়ার শঙ্কা রয়েছে। তাই সবসময় নয়, মাঝে মাঝে এই পন্থায় মাছ ভাজা উত্তম…

মাছের পিস- ৬টি

হলুদ গুঁড়া- এক চা চামচ

মরিচ গুঁড়া- সামান্য

রসুন বাটা- এক চা চামচ

তেল- ২ কাপ

লবণ- পরিমাণ মতো

মাছ ভালো করে ধুয়ে নিন, বিশেষ করে মাছের ভিতরের অংশ ভালভাবে পরিষ্কার করে ধুয়ে নিন। লবন এবং হলুদ দিয়ে মাছটি ৫ থেকে ১০ মিনিট রেখে দিন। লবন ও হলুদ দিয়ে মাখা মাছটি আবার ধুয়ে নিন। এতে মাছের আঁশটে গন্ধ দূর হয়ে যায়। 

সমস্ত মসলা একসাথে মিশিয়ে মাছের টুকরার ভেতর এবং বাইরের অংশে ভাল করে মাখিয়ে নিন।  ফ্ল্যাট ননস্টিক প্যানে তেল খুব ভালভাবে গরম করুন। তেল এমনভাবে দিন যেন মাছের টুকরাগুলো অর্ধেক তেলে ডুবতে পারে।  মাছটি আস্তে গরম তেলে দিয়ে চুলার আঁচ মিডিয়াম করে দিন। মাছটির প্রতিটি পাশ প্রায় ৮ থেকে ১০ মিনিট কড়া করে ভেজে নিন। প্যানের তলা হতে আস্তে নেড়ে মাছটি আলগা করে আস্তে উল্টিয়ে দিন। মাছ কাঁচা অবস্থায় না উল্টিয়ে, পুরপুরি ভাজা হওয়ার পর উল্টিয়ে নিলে, আলগা করতে সুবিধা হয় এবং মাছ ভেঙ্গে যায় না।

মাছ মাখানো

গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন। এমন মাছ ভাজা এমনিতেও প্লেট ভরে খেতে পারবেন।

/এফএএন/

Ifad ad on bangla tribune

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ