নারীর আত্মহত্যাপ্রবণ ইচ্ছেগুলোকে দমন করবে যে বইটি

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৫:৪৯, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৫০, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৭

 

পুরুষএকুশে বইমেলার পাওয়া যাচ্ছে রোকেয়া লিটার উপন্যাস “পুরুষ”। বইটি প্রকাশ করেছে শব্দশৈলী প্রকাশনী। বরাবরের মতই এবারও একটি ভিন্নধর্মী গল্প উঠে এসেছে লেখকের এই উপন্যাসটিতে।

উপন্যাসের কাহিনী গড়ে উঠেছে “মৃদুলা” নামে একটি মেয়ের জীবনে ঘটে যাওয়া কিছু বেদনাদায়ক ঘটনার মধ্য দিয়ে। মুসলিম পরিবারে জন্ম নেওয়া মৃদুলা কার্তিক নামে এক হিন্দু ছেলের প্রেমে পড়ে। কার্তিক নিজেকে নাস্তিক বলেই দাবি করে। ধর্ম তার কাছে এক ধরণের আফিম,  সবাইকে সে এই আফিম থেকে দূরে থাকতে বলে। স্ত্রী ব্যতীত, সারা জীবনে সে যতগুলো মেয়ের সাথে প্রেম করেছে, তারা সবাই ছিল মুসলমান। কার্তিকের প্রেমে পড়ে একটি মেয়ে আত্মহত্যা করলেও সে থেমে থাকে না। একের পর এক মেয়েদের সাথে প্রেম করেই যায় সে। বরং, তার মৃত প্রেমিকাকে পুঁজি করেই সে মেয়েদের পটায়। উপন্যাসের নায়িকা “মৃদুলা” তেমনি একটি মেয়ে, যে কি না কার্তিকের ফাঁদে পা দেয় এবং তার সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে জীবনের চরম মূল্য দেয়। একটা সময় মৃদুলা বুঝতে পারে কার্তিক নাস্তিকও নয়, কার্তিক প্রেমিকও নয়। সে একজন কট্টর মৌলবাদী হিন্দু। সারা জীবন মুসলমান মেয়েদেরকে প্রেমের ফাঁদে ফেলাই ছিলো তার মৌলবাদের হাতিয়ার। এই হলো উপন্যাসটির মূল বিষয়।

উপন্যাসটি সম্পর্কে রোকেয়া লিটা জানান, “ সম্প্রতি মেয়েদের আত্মহত্যা করার প্রবণতা খুব বেড়ে গেছে। বেশিভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায়, মেয়েরা তাদের প্রেমিক বা পুরুষ সঙ্গীর দ্বারা প্রতারিত হলেই আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে। আসলে জীবনটা তো এতো সস্তা নয়, তাই না? জীবনটা সত্যিই যে সস্তা নয় এবং শত ভাঙাগড়ার পরেও যে জীবনকে আবার নতুনভাবে সাজানো যায়, সেই পথই দেখাবে “পুরুষ” উপন্যাসটি”।

“পুরুষ” রোকেয়া লিটার তৃতীয় উপন্যাস। এর আগে তিনি আগামী প্রকাশনী থেকে “সমকামিতা” এবং সময় প্রকাশন থেকে “ডুমুরের ফুল” নামে দুটি উপন্যাস প্রকাশ করেন।

/এফএএন/

লাইভ

টপ