পুলিৎজার বিজয়ী অ্যাডাম জনসন

Send
.
প্রকাশিত : ১৮:৪২, নভেম্বর ০৬, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৩৫, নভেম্বর ০৬, ২০১৮

৮ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে অষ্টম ঢাকা লিট ফেস্ট। এবারের ফেস্টে অংশগ্রহণ করছেন পুলিৎজার বিজয়ী লেখক অ্যাডাম জনসনতাকে নিয়ে লিখেছেন ইরা সামন্ত

অ্যাডাম জনসন একাধারে ঔপন্যাসিক ও ছোট গল্পকার। তিনি ১৯৬৭ সালের ১২ জুলাই আমেরিকার দক্ষিণ ডেকোটায় জন্মগ্রহণ করেন। বেড়ে উঠেছেন এরিজোনাতে। তিনি এরিজোনা স্টেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৯২ সালে সাংবাদিকতায় স্নাতক শেষ করেন। এরপর ১৯৯৬ সালে ম্যাকনেস স্টেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাইটিং প্রোগ্রামে এমএফএ ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ২০০১ সালে ফ্লোরিডা স্টেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

এ পর্যন্ত জনসনের দুইটি উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছে। তার প্রথম উপন্যাস ‘প্যারাসাইট লাইক আস’ প্রকাশিত হয় ২০০৩ সালে। বইটি সে বছর ‘ক্যালিফোর্নিয়া বুক পুরস্কার’ জিতে নেয়। এই উপন্যাসটি গড়ে উঠেছে একজন নৃবিজ্ঞানীকে নিয়ে, যিনি ও তার দল একসাথে প্রাচীন ফ্র্যাঙ্কিশ উপজাতিকে খুঁজে পায়। এই উপজাতির রাজাকে ডাকা হতো ক্লোভিস নামে, কিছু কিছু স্থানে ওই জাতিগোষ্ঠীকেও ক্লোভিস নামে ডাকা হয়েছে।

জনসনের দ্বিতীয় উপন্যাস “দ্য অরফ্যান মাস্টার’স সন” প্রকাশিত হয় ২০১২ সালে। মূলত এই উপন্যাসটির কারণে তিনি সবথেকে বেশি পরিচিত পান। কারণ ২০১৩ সালে গ্রন্থটির জন্য তিনি পুলিৎজার পুরস্কার অর্জন করেন। এই উপন্যাসে উত্তর কোরিয়ার ভয়াবহ দিক উন্মোচিত হয়েছে। পাশাপাশি ফুটে উঠেছে ভালবাসা আর আত্মত্যাগের বিভিন্ন কাহিনী।

উপন্যাসে অল্প সময়েই খ্যাতি পেলেও জনসনের প্রথম প্রকাশিত বই ছোটগল্পের। ২০০২ সালে প্রকাশিত ওই ছোটগল্পের বইটির নাম ‘ইম্পোরিয়াম’। তার দ্বিতীয় ছোটগল্পের বই ‘ফরচুন স্মাইল’ প্রকাশ পায় ২০১৫ সালে।  এ উপন্যাসটির জন্য সে বছর তিনি ‘স্টোরি পুরস্কার’ পান।

পৃথিবীর বেশ কয়েকটি ভাষায় অ্যাডাম জনসনের সাহিত্যকর্ম অনূদিত হয়েছে। সাহিত্যে অবদানের কারণে তিনি পুলিৎজার পুরস্কার ছাড়াও এ পর্যন্ত ‘কিংসবেরি  ফেলোশিপ’ 'amazon.com-এর বর্ষসেরা নতুন লেখক পুরস্কার', ‘ডেটন লিটেরারি পিস প্রাইজ’, ‘ন্যাশনাল বুক এ্যাওয়ার্ড ফর ফিকশন’ সহ বেশকিছু পুরস্কার জিতেছেন।

বর্তমানে তিনি আমেরিকার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ইংরেজির অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত।

//জেডএস//

লাইভ

টপ