ব্রিটিশ লেখক জেমস মিক

Send
.
প্রকাশিত : ১৯:৫৭, নভেম্বর ০৬, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:০০, নভেম্বর ০৬, ২০১৮

৮ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে অষ্টম ঢাকা লিট ফেস্ট। এবারের ফেস্টে অংশগ্রহণ করছেন ব্রিটিশ লেখক জেমস মিকতাকে নিয়ে লিখেছেন ইরা সামন্ত

বৃটিশ কথাসাহিত্যিক ও সাংবাদিক জেমস মিক ১৯৬২ সালে লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন। বেড়ে উঠেছেন স্কটল্যান্ডের ডান্ডি শহরে।

জেমস মিকের লেখালেখির শুরুটা স্কুল জীবন থেকেই। আশির দশকে এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র থাকাকালীন ‘এডিনবার্গ রিভিউ’ সাহিত্য পত্রিকায় তার প্রথম ছোটগল্প প্রকাশিত হয় । এরপর বই হিসেবে তার লেখা প্রথম প্রকাশ পায় ১৯৮২ সালে। এটি ছিল স্কটিশ ছোটগল্পের একটি সংকলন।

এখনো পর্যন্ত মিকের আটটি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। ১৯৮৯ সালে প্রকাশিত হয় তার প্রথম বই ‘ম্যাকফার্লেন বয়েলস দ্য সি’। এটি ছিলো একটি উপন্যাসগ্রন্থ। তবে তার দ্বিতীয়গ্রন্থটি ছোটগল্পের। ১৯৯২ সালে প্রকাশিত বইটির নাম— ‘লাস্ট অরডার্স অ্যান্ড স্টোরিস’। মিকের প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে যে বইটি বিশ্বব্যাপী বহুল আলোচিত, তার নাম ‘দ্য পিপলস এ্যাক্ট অফ লাভ’। এই উপন্যাসগ্রন্থটি প্রকাশের পর তিনি বিশ্বব্যাপী পরিচিতি পান। কারণ ২০০৫ সালে এই উপন্যাসের জন্য মিক ‘স্কটিশ আর্টস কাউন্সিল বুক অফ দ্য ইয়ার’ এবং ‘অন্দাতেজ পুরস্কার পান’। বইটি স্থান করে নেয় বুকার পুরস্কারের দীর্ঘ তালিকায়। ২০০৮ সালে তার আরো একটি উপন্যাস প্রকাশ পায়। ‘উই আর নাউ বিগিনিং আওয়ার ডিসেন্ট’ নামের ওই উপন্যাসটির জন্য তিনি ‘লা প্রিন্স মাওরিস পুরস্কার’ পান।

জেমস মিকের পুরস্কারের ঝুলিতে আরো রয়েছে  ২০০২ এ পাওয়া ‘রয়টার্স-আইইউসিএন মিডিয়া পুরস্কার’, ‘বৃটিশ প্রেস এ্যায়ার্ডস ফরেন রিপোর্টার অফ দ্য ইয়ার’, ‘এ্যামিনিস্টি ইন্টারন্যাশনাল বর্ষ সেরা সাংবাদিক পুরস্কার’, ‘অরওয়েল পুরস্কার’ প্রভৃতি।

বর্তমানে তিনি ‘দ্য লন্ডন রিভিউ অফ বুকস’ সাহিত্য সাময়িকীতে কন্ট্রিবিউটিং এডিটর হিসেবে কর্মরত।

//জেডএস//

লাইভ

টপ