‘শালুক’-এর উদ্যোগে সাহিত্যসন্ধ্যা

Send
সাহিত্য ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:১৯, এপ্রিল ০৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৪, এপ্রিল ০৪, ২০১৯

ছোটকাগজ ‘শালুক’-এর ২০ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে আগামী ৫ এপ্রিল শুক্রবার ঢাকার শাহবাগস্থ পাঠক সমাবেশ কেন্দ্রে একটি সাহিত্যসন্ধ্যার আয়োজন করা হয়েছে। শালুকের উদ্যোগে ‘প্রতিস্রোত’ নামের এ সাহিত্যসন্ধ্যায় থাকছে প্রবন্ধ, আলোচনা, পাঠ পর্যালোচনা, বই পরিচিতি, ১০ কবির নতুন বই থেকে কবিতা পাঠসহ আরো ২০ কবির কবিতা পাঠ।

বিকাল সাড়ে চারটায় অনুষ্ঠান শুরু হবে প্রবন্ধ পাঠের মাধ্যমে। এপর্বে মূল আলোচনার প্রবন্ধ পাঠ  করবেন কবি ও শালুক সম্পাদক ওবায়েদ আকাশ। প্রবন্ধের বিষয় ‘সাম্প্রতিক সময়ে লিটল ম্যাগাজিন চর্চার প্রাসঙ্গিকতা ও অপরিহার্যতা’। মূল প্রবন্ধের ওপর আলোচনা করবেন কথাসাহিত্যিক ও অনুবাদক অনন্ত মাহফুজ, কবি ও নন্দনতাত্ত্বিক মাহফুজ আল-হোসেন, কথাসাহিত্যিক ও অনুবাদক মোজাফফর হোসেন এবং চিত্রসমালোচক ও শিল্পী সঞ্জয় দে রিপন।

দ্বিতীয় পর্ব থাকছে পাঠ পর্যালোচনা। এ পর্বে ‘শালুক’-এর সর্বসাম্প্রতিক দুটি সংখ্যা নিয়ে পাঠ পর্যালোচনা করবেন প্রাবন্ধিক জামিরুল শরীফ, প্রাবন্ধিক শিক্ষাবিদ সরকার আবদুল মান্নান এবং কবি ও কথাসাহিত্যিক সুমন শামস। সংখ্যা দুটি ‘অন্য ভাষার সাহিত্য পাঠ‘ ও ‘সিকদার আমিনুল হক সংখ্যা‘ নামে প্রকাশিত হয়েছে।

তৃতীয় পর্বে রয়েছে ২০১৯ সালে প্রকাশিত দশটি বই-এর পরিচিতি ও বই থেকে কবিতাপাঠ। আলোচ্য বইগুলো হলো—প্রতীচ্যের বিউগল : মাহফুজ আল-হোসেন, সর্বনামের সুখদুঃখ : ওবায়েদ আকাশ, দম-যোগিনীর তাল : জাফর সাদেক, ছুঁয়ে যাও না ছোঁয়ার ভান করে : আদিত্য নজরুল, তাঁবুকাব্য : তুষার কবির, জলের নিচে অনন্ত দুপুর : মাহবুব মিত্র, ছাঁটমানুষের জাগ : অমিত আশরাফ, কামার্ত নগরের কামিজ : মাহফুজা অনন্যা, হিমঘরে চাঁদের শয্যা : আহমেদ শিপলু এবং খড়কুটো ও জলের কাব্য : লিজা ফাহমিদা।

চতুর্থ পর্বে নির্বাচিত ২০ কবি কবিতা পাঠ করবেন। কবিরা হলেন—আবদুর রাজ্জাক, মিহির মুসাকী, হাইকেল হাশমী, চয়ন শায়েরী, কাজল কানন, জুনান নাশিত, মামুন মুস্তাফা, আবদুল্লাহ জামিল, সাকিরা পারভীন, সোহেল মাজহার, মনিরুজ্জামান মিন্টু, শেলী সেনগুপ্তা, চামেলী বসু, মাহফুজ রিপন, গিরীশ গৈরিক, রিসতিয়াক আহমেদ, তরুন ইউসুফ, ডালিয়া চৌধুরী ও জাকির সোহান।

শালুক সম্পাদক কবি ওবায়েদ আকাশ বলেন, ‘এখন থেকে প্রতিমাসে অনুষ্ঠিত হবে সাহিত্যসন্ধ্যা ‘প্রতিস্রোত’। তিনি আরো বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে তরুণদের মধ্যে নিরীক্ষাপ্রবণতা কমে গেছে এবং লিটল ম্যাগাজিন চেতনা থেকে তারা অনেক দূরে সরে এসেছে। অথচ নতুন সৃষ্টির জন্য লিটল ম্যগাজিন চর্চার কোনো বিকল্প নেই। শালুক-এর উদ্যোগে ‘প্রতিস্রোত’ নামে নিয়মিত এ সাহিত্যসন্ধ্যার ভেতর দিয়ে তরুণরা সৃষ্টিশীলতায় আরো বেশি মনযোগী হবে বলে আশা রাখি।

//জেডএস//

লাইভ

টপ