সুসান ব্রাডলি স্মিথের কবিতা

Send
অনুবাদ : শেলী নাজ
প্রকাশিত : ০৯:০০, মে ২৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:০০, মে ২৬, ২০১৯

সুসান ব্রাডলি স্মিথ অস্ট্রেলিয়ান কবিকার্টিন বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিয়েটিভ রাইটিং বিভাগের সিনিয়র অধ্যাপক। তার সাম্প্রতিক কবিতার বই 'বেড ফর অল হু কাম'

পাহাড়ের বিষয়াদি ; দম বন্ধ কল্পনার রহস্য-উন্মোচক

১.

চারটে পুরুষ বসে আছে আমার ওপর

যেন তারা কোনো এক দর্শনীয় স্থানের মিলিত দর্শক

সবাই পুরুষ—তা না হলে সম্ভব ছিল না এমন যৌথভ্রমণ।

তারা নিঃসঙ্গ। তারা যোগ দিয়েছে একটি ক্লাবে। তারা জানে না

অথবা ঠিক বুঝে উঠতে পারছে না তাদের পুরুষ হয়ে ওঠা।

তারা সৈনিক। আমার চূড়ায় উঠে সমুদ্র দেখতে পায়

এটা তাদের বিশ্রাম, ডে-অফ। রোস্টার্ড ডে-অফ। হো হো হো।

তারা যেকোনো মুহূর্তে পা ফসকে পড়ে যেতে পারে, মরে যেতে পারে

নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

২.

আমি সেই পাথর, যাতে বসে আছ তুমি। আমার রয়েছে

পাহাড়ের মতো ব্যক্তিত্ব। শেরপার কাছে আমি বেশ্যা

যখন তোমরা প্রমোদ-উল্লাসে ফেটে পড়, আমার উপর উঠে—

আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, তোমাদের কেটে কেটে টুকরো করব না

কিন্তু একদিন হয়তোবা ভেঙে পড়ব। যেমন শৈলচূড়া ধ্বসে পরে

যদি জীবন ফুরায়, আশ্চর্য তুষার হব আমি, কোমল তুষার, প্রগাঢ় তুষার

যার আছে ধ্বস ঠেকানোর শক্তি। যদি তুষার হয়েও ভেঙে পড়ি

আমি এইসব পবিত্র প্রমোদ শিকারিদের খুন করব

বিশেষত যারা ভান করে পাহাড়ের ঢালে তাদের ভ্রমণ 

শুধু ফুর্তিই নয়, আছে কিছু ভিন্নতা, কারণ! 

৩.        

এখনো আছি এইখানে। কোথায় প্রত্যেকে?

বরবাদ হলো একটা সূর্যাস্ত!

৪.

রাত্রিতে খরচ হয়ে যাওয়া বীর্যই যেন উজ্জ্বল আলোর একমাত্র দিশা

আমার দেহতলে এসে আঠার মতো আমাকে জোড়া লাগায়

চাঁদের সঙ্গে কথা বলতে থাকে এক অদ্ভুত সাংকেতিক ভাষায়;

আমি তোমাকে ভালোবাসি, আমি তোমাকে ভালোবাসি না,

আমি তোমাকে ভালোবাসি।  

//জেডএস//

লাইভ

টপ