শেষ হলো ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স অ্যান্ড রোবো ফেস্ট’

Send
ক্যাম্পাস রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১১:১২, মে ০৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৪৮, মে ১০, ২০১৯

ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এবং জাপান বাংলাদেশ রোবোটিক্স অ্যান্ড অ্যাডভান্সড টেকনোলোজি রিসার্চ সেন্টার আইট্রিপলই বাংলাদেশ সেকশন এবং আইট্রিপলই রোবোটিক্স ও অটোমেশন সোসাইটি বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের কারিগরি সহ-পৃষ্ঠপোষকতায় যৌথভাবে সম্প্রতি ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি প্রাঙ্গণে আয়োজন করে ‘প্রথম ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স অন এডভান্সেস ইন সাইন্স, ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড রোবোটিক্স টেকনোলোজি ২০১৯’ এবং ‘ইন্টারন্যাশনাল রোবো ফেস্ট ২০১৯’ (আইসিএএসইআরটি ২০১৯)।
বাংলাদেশে বিজ্ঞান, প্রকৌশল এবং রোবোটিক্স প্রযুক্তির অগ্রগতি নিয়ে আয়োজিত এ সম্মেলনের সমাপনি অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এ সম্মেলনের মূল লক্ষ্য ছিল বিশ্বের সকল বিজ্ঞানী, প্রকৌশলী, শিক্ষাবিদ, গবেষক এবং ছাত্রদের বিজ্ঞানকেন্দ্রিক তাদের নিজস্ব চিন্তাধারা অংশগ্রহণকারী সকলের মধ্যে আদান প্রদানের সুযোগ সৃষ্টি করে দেওয়া। সমস্ত গবেষণাপত্র একটি পুঙ্খানুপুঙ্খ এবং পর্যালোচনা প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যাচাই করা হয়েছে। এ যাচাই প্রক্রিয়ার কারিগরি পরিষদের প্রধান ছিলেন সিনিয়র আইট্রিপলই ফেলো ইটালির অধ্যাপক ড. ভিনচেনজো পিউরি কারিগরি।


সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী প্রকৌশলী ইয়াফেস ওসমান এমপি, সম্মেলনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য ও প্রধান উপদেষ্টা ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন, সম্মেলন প্রধান হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম এম শহীদুল হাসান। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারপারসন ও আয়োজক কমিটির প্রধান ড. আহমেদ ওয়াসিফ রেজা। এ সম্মেলনে দেশ-বিদেশ থেকে প্রায় ৩২০ জন অতিথি, গবেষক এবং প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। সমাপনি দিনে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ‘আইট্রিপলই বাংলাদেশ সেকশন বেস্ট পেপার অ্যাওয়ার্ড’ এর পাশাপাশি ‘বেস্ট পেপার অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান করা হয়।
এ সম্মেলনের সঙ্গে যুক্ত হওয়া ‘ইন্টারন্যাশনাল রোবো-ফেস্ট ২০১৯’ অংশগ্রহণকারীদের রোবোটিক্সের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে এবং বাংলাদেশের অংশগ্রহণকারীরা জাতীয় উন্নয়নে রোবোভিত্তিক কারিগরি দক্ষতা ব্যবহার করে নতুন চিন্তাধারার প্রকাশ ঘটাতে সক্ষম হয়। এ সম্মেলনে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অংশগ্রহণকারীদের গবেষণা করার ধরণ, নতুন চিন্তাধারা বের করা, বোঝা এবং বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও রোবোটিক্স সম্পর্কিত নিজস্ব গবেষণা অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে প্রচার করতে সাহায্য করেছে।
রোবো ফেস্টে অটোনোমাস রোবোটিক্স কনটেস্ট, ড্রোন রেস, ব্যাটল বট, কার রেস, রোবো সোসার, হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার প্রদর্শনী এবং আইডিয়া প্রেসেন্টেশন এর মতো সাতটি সেগমেন্ট ছিল অংশগ্রহণকারীদের জন্য। সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও রোবোটিক্স,  আর্টিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স, ইন্টারনেট অব থিংস, ম্যাশিন লার্নিং ইত্যাদি সুযোগ সুবিধা পাচ্ছে।  ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এ আন্তর্জাতিক সম্মেলন দেশের অগ্রযাত্রায়  এবং বাংলাদেশের বর্তমান সরকারের অন্যতম ভিশন ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’-এ অনন্য ভূমিকা রাখবে বলে বিশ্বাস আয়োজকদের।

/এনএ/

লাইভ

টপ