নানা আয়োজনে রাবির ৬৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

Send
রাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২১:১৬, জুলাই ০৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:১৮, জুলাই ০৬, ২০১৯

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ইতিহাস, ঐতিহ্যের ৬৬ বছর পেরিয়ে ৬৭ বছরে পর্দাপণ করল প্রাচ্যের ক্যামব্রিজখ্যাত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। ‘শিক্ষা শান্তি প্রগতির ধারা আজও আমাদের সাথি, অবিরাম এই চলার ছন্দে আমরা অলোর জ্ঞাতি’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে নানা অয়োজনে  রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ৬৬ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনের সামনে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে পতাকা উত্তোলন, এবং পায়রা ও বেলুন-ফেস্টুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহান। পরে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনের পাশে একটি বকুল ফুলের চারা রোপণ করেন উপাচার্য।

পরে প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এক আনন্দ র‍্যালি বের করা হয়। র‍্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে শেষ হয়। এতে  বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ, ইনস্টিটিউট, আবাসিক হল সমূহের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারিরা অংশগ্রহণ করেন।

র‍্যালি পূর্ববর্তী এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান বলেন, ‘প্রতিটা জন্মদিন আনন্দের। হোক সেটা মানুষ বা প্রতিষ্ঠানের। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় তার গৌরবের ৬৭ বছরে পদার্পণ করেছে। আমরা আজ আনন্দিত।’

এক প্রশ্নের জবাবে উপাচার্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের র‍্যাকিং কেবল পরীক্ষার ফলাফলের উপর নির্ভর করে না। এটি নির্ভর বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার ওপর। যে বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা যত বেশি সে বিশ্ববিদ্যালয়ের র‍্যাকিং তত সামনে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত নান্দনিকতা ও সৌন্দর্য যত বাড়বে শিক্ষার্থীরা গবেষণায় তত আগ্রহী হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত নান্দনিকতা বাড়াতে কাজ করছে বর্তমান প্রশাসন। সাত পুকুর প্রকল্প তার অন্যতম প্রমাণ। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিশ্ব মানের নাগরিক তৈরি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন রাবি উপাচার্য।

এছাড়াও প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিকেলে আন্তঃকলেজ চ্যাম্পিয়ন ও বিভাগ চ্যাম্পিয়নদের মধ্যে এক প্রীতি ফুটবল ম্যাচ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

 

/এফএএন/

লাইভ

টপ