ইবিতে ফুটবল টুর্নামেন্টে সংঘর্ষ, বিক্ষোভ-প্রতিবাদ

Send
ইবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৭:৩০, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৩৬, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) বঙ্গবন্ধু কাপ আন্তঃবিভাগ ফুটবল টুর্নামেন্টে দুই বিভাগের খেলোয়াড়দের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ফুটবল মাঠে মার্কেটিং ও ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের খেলায় এ ঘটনা ঘটে। এতে ট্যুরিজম বিভাগের এক শিক্ষক-কর্মকর্তাসহ আটজন খেলোয়াড় আহত হন।


এ ঘটনার প্রতিবাদে আজ সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) কালো কাপড়ে মুখ বেঁধে মানববন্ধন, মৌন মিছিল এবং স্মারকলিপি প্রদান করেছে ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থীরা।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, খেলার দ্বিতীয়ার্ধে ট্যুরিজম বিভাগের খেলোয়াড় নাঈম গোল করতে গেলে মার্কেটিংয়ের এক খেলোয়ারের সাথে ধাক্কা লেগে দুজনই পড়ে যায়। এসময় মার্কেটিং বিভাগের ওই খেলোয়াড় নাঈমের মুখে আঘাত করে। ঘটনায় নাঈম ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে ধাক্কা দেয়। এতে মার্কেটিং বিভাগের অন্যান্য খেলোয়াড়রা একত্রিত হয়ে নাঈমের ওপর চড়াও হয়।
এক পর্যায়ে বিষয়টি মীমাংসার জন্য ট্যুরিজম বিভাগের প্রভাষক শরিফুল ইসলাম জুয়েল ও অফিস সহকারী মোস্তফিজুর রহমান এগিয়ে গেলে তাদেরও উপরও চড়াও হয়  মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এক পর্যায়ে দর্শকসারি থেকে কয়েকজন মাঠের মধ্যে প্রবেশ করে নাঈমকে ও একই দলের আল-আমিনকে মারধর করতে শুরু করে। এসময় তাদেরকে রক্ষা করতে ট্যুরিজমের অন্য খেলোয়াড়রা এগিয়ে আসলে দুই দলের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়।  এসময় ট্যুরিজম বিভাগের খেলোয়াড় সুজন, আল-আমিন, রাজ, রাফি, সালেহসহ ৮ জন খেলোয়ার আহত হন।
আহতদের তৎক্ষণাৎ বিশ্ববিদ্যালয় মেডিক্যালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। তারমধ্যে আশঙ্কাজনক ২ জনকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে ক্রীড়া বিভাগের শৃঙ্খলা কমিটির প্রচেষ্টায় পরিস্থিতি শান্ত হয়। সেই সঙ্গে টুর্নামেন্টের ক্রীড়া কমিটির সিদ্ধান্তে দুই দলের মধ্যকার খেলা স্থগিত ঘোষণা করা হয়। এতে খেলাটি গোল শূন্যে অমিমাংসীত থাকে।


এ বিষয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত সহকারী প্রক্টর আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি ট্যুরিজমের একটি ছেলেকে মারধর করছে কিছু শিক্ষার্থী। আমি দৌড়ে গিয়ে তাকে রক্ষা করি। আমরা লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’
এ বিষয়ে ক্রীড়া বিভাগের পরিচালক ড. সোহেল বলেন, এই ঘটনায় আমরা খেলাটি স্থগিত করেছি। আমরা আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করছি।’

/এনএ/

লাইভ

টপ