behind the news
Rehab ad on bangla tribune
Vision Led ad on bangla Tribune

‘বঙ্গবন্ধুকে বাদ দিলে বাংলাদেশের স্বাধীনতা থাকে না’

ঢাকা কলেজ প্রতিনিধি১৭:০৬, মার্চ ১৭, ২০১৬

আনন্দর‌্যালী‘বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা’ কথাগুলো একই সূতায় গাঁথা। যার মধ্যে বঙ্গবন্ধুর কথা বাদ দিলে দেশের জনগণের স্বাধীনতা, অধিকার ও গণতন্ত্র থাকে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষা সচিব সোহরাব হোসেন।
বৃহস্পতিবার ঢাকা কলেজের টিচার্স লাউঞ্জে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনের ওপর আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
সোহরাব হোসেন বলেন, জাতির জনক ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যা করার পর স্বাধীনতাবিরোধীরা বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে অভিযোগ খুঁজেছে। কিন্তু বঙ্গবন্ধু এমন একজন নেতা ছিলেন যার মধ্যে কোনও লোভ ছিল না। তিনি যা করেছেন জনগণের স্বার্থেই করেছেন।
তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন একজন আপোসহীন নেতা। এই মহান নেতা তার জীবনের একটা দীর্ঘ সময় কারাগারে কাটিয়েছেন। জুলুম সহ্য করেছেন। কিন্তু কখনও অন্যায়ের সাথে আপোস করেননি। নেতা হতে হলে তার মতো হতে হবে।
আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোয়াজ্জম হোসেন মোল্লা, বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক ড. শফিকুল ইসলাম তালুকদার, শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ড. মো. লোকমান হোসেন, ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক নেহাল হোসেন প্রমুখ।

বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন শিক্ষা সচিবদিবসটি উপলক্ষে সকালে কলেজের টিচার্স লাউঞ্চের সামনে শিশুদের  চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন।
চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতা শেষে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে একটি আনন্দর‌্যালি বের হয়। র‌্যালিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন।
আলোচনা সভা শেষে রচনা ও  চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন শিক্ষা সচিব সোহরাব হোসেন।

এসি-আরজে/এসএনএইচ

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ