‘সড়ক থেকে হাফেজ্জী হুজুরের নাম মুছে দেওয়ার পরিণাম শুভ হবে না’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০৫:০১, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ০৬:০৪, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৭

বিজ্ঞপ্তি

গুলিস্তানের গোলাপ শাহ মাজার সড়ক থেকে ‘মাওলানা মুহাম্মদুলাহ হাফেজ্জী হুজুর”এর নাম মুছে দেওয়ার পরিণাম শুভ হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির ও ঢাকা মহানগরীর আমির মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী। বৃহস্পতিবার দলের এক সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

মাওলানা হামিদী বলেন, হাফেজ্জী হুজুর ছিলেন সব মানুষের  শ্রদ্ধার পাত্র। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুস সামাদ আজাদসহ সব বরেণ্য ব্যক্তিই হাফেজ্জী হুজুরকে শ্রদ্ধা করতেন এবং তাঁর সান্নিধ্যে আসতেন ও দোয়া নিতেন। বর্তমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও হাফেজ্জী হুজুরকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন। হুজুরের জীবদ্দশায় তাঁর কাছে দোয়া নিতেন এবং তাঁর মৃত্যুর পর তিনি (শেখ হাসিনা) হুজুরের বাসভবনে সমবেদনা জানাতেও এসেছিলেন। আর মাওলানা মুহাম্মদুলাহ হাফেজ্জী হুজুরের নাম স্মরণীয় করে রাখার জন্য রাজধানীর গোলাপ শাহ মাজারবর্তী সড়কের নামকরণ করেছিলেন ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মোহাম্মদ হানিফ।  

সভায় অবিলম্বে হাফেজ্জী হুজুরের নামে সড়কের নাম বহাল রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে মুজিবুর রহমান বলেছেন হাফেজ্জী হুজুরকে নিয়ে কোনও ধরনের চক্রান্ত দেশের ইসলাম প্রিয় জনতা সহ্য করবে না।

উল্লেখ্য, গত ২২ ফেব্রুয়ারি একটি জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে হাফেজ্জি হুজুর ও জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের প্রথম খতিব মুফতি আমিমুল ইহসান (রহ.) এর নামে সড়কের নামকরণ বাতিল করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ। এ নির্দেশনা অনুযায়ী সড়ক দুটির সব স্থাপনা থেকে নাম দুটি মুছে ফেলার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে ।

পত্রিকায় প্রকাশিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, হাইকোর্টের ৫৫৩১/২০২১ নং রিট পিটিশনের আদেশের সঙ্গে সংযুক্ত তালিকার ১৪নং ক্রমিকে উল্লেখিত নির্দেশনা অনুযায়ী সড়ক দুটির নামকরণ বাতিল করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন।

/সিএ/টিএন/

লাইভ

টপ