সবাইকে নিয়ে কাজ করবো: ঢাবি উপাচার্য

Send
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:১৮, সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৪৯, সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১৭

ড. আখতারুজ্জামানদায়িত্ব গ্রহণের পর সবার সঙ্গে এক হয়ে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নবনিযুক্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। বুধবার (০৬ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টায় দায়িত্ব গ্রহণ করেন তিনি। গত সোমবার অধ্যাপক আখতারুজ্জামানকে উপাচার্য হিসেবে সাময়িকভাবে নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য মো. আবদুল হামিদ।

দায়িত্ব গ্রহণের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়ে অংশ নেন অধ্যাপক আখতারুজ্জামান। এ সময় তিনি বলেন, ‘আমার প্রধান কাজ হবে সবাইকে ধারণ করা। এখানে কে কোন পন্থী, তা আমার বিবেচ্য নয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সবাইকে নিয়ে কাজ করতে হবে। প্রতিষ্ঠানের ঐতিহ্য ও মর্যাদার ব্যাপারে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। সবাই যেন অর্পিত দায়িত্ব যথাযথ পালন করেন, সেটাই চাওয়া। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নীতি “সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়”—আমরা যেন অক্ষুণ্ন রাখি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের অনেক সমস্যা আছে। সেসব সমাধানের জন্য আগের উপাচার্যদের নেওয়া পদক্ষেপগুলো এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আগে যারা কাজ করেছেন, এটা হবে তারই ধারাবাহিকতা। কিভাবে ভালোর দিকে অগ্রসর যাওয়া যায়, সে প্রয়াস অব্যাহত থাকবে।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নবনিযুক্ত উপাচার্য বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচন কোনও একক সিদ্ধান্তের বিষয় নয়। এটি ব্যাপক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অনেক অংশীদারের সিদ্ধান্তের বিষয়। তবে এর উদ্যোগ নিতে হবে। আমরা হয়তো একটা সমন্বয়কের ভূমিকা রাখবো।’

ড. আখতারুজ্জামান এর আগে ২০১৬ সালের ২৩ জুন থেকে ঢাবির উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের এই অধ্যাপক ২০১৪ সালে কলা অনুষদের ডিন নির্বাচিত হন। তিনি ঢাবির ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ থেকে বিএ অনার্স ও এমএ পরীক্ষায় প্রথম স্থান অর্জন করেন।

ঢাবি থেকে ডিপ্লোমা ইন পার্সিয়ান ল্যাঙ্গুয়েজ বিষয়ে পোস্ট-গ্র্যাজুয়েট ও ভারতের আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন কলেজের ফুলব্রাইট স্কলার ও যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রিসার্চ ফেলো ছিলেন ড. আখতারুজ্জামান।

অধ্যাপক আখতারুজ্জামান ২০০৪, ২০০৫ ও ২০০৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

১৯৯০ সালে তিনি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের লেকচারার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৯৫ সালের ১৫ জানুয়ারি সহকারী অধ্যাপক, ২০০০ সালের ২ জানুয়ারি সহযোগী অধ্যাপক এবং ২০০৪ সালে তিনি অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পান। ২০০৮ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত বিভাগীয় চেয়ারম্যান এবং ২০০৭ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত কবি জসীম উদ্‌দীন হলের প্রাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

 

 

/এসটি/এএম/

লাইভ

টপ