কোটা নিয়ে আন্দোলনকারীদের আল্টিমেটামে প্রধানমন্ত্রী ক্ষুব্ধ

Send
শফিকুল ইসলাম
প্রকাশিত : ১৬:০০, মে ১৪, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:১৮, মে ১৫, ২০১৮

সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সরকার চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীদের  দফায় দফায় আল্টিমেটামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষুব্ধ। সোমবার মন্ত্রিপরিষদ সভা চলাকালে তিনি এ বিষয়ে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন। মন্ত্রিপরিষদের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রের মাধ্যমে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

মন্ত্রিপরিষদ সভায় ছিলেন এমন একাধিক সূত্র জানান, কোটা নিয়ে আন্দোলনকারীদের আল্টিমেটামে প্রধানমন্ত্রী ক্ষুব্ধ। আন্দোলনকারীদের অবস্থানে শাহবাগ অচল—এই প্রসঙ্গ আলোচনায় ওঠার পর প্রধানমন্ত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

সূত্র জানায় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘আমি তো একটা কথা বলেছি, কমিটি কাজ করছে। কেউ বসে নাই, এটা একটা লম্বা প্রক্রিয়া। আমি একটা কথা দিয়েছি, সংশ্লিষ্ট লোকজন তা নিয়ে কাজ করছে। আন্দোলনকারীরা বলে, ক্লাস করবে না। না করলে না করবে, এতে তাদেরই ক্ষতি। আমি তো বলেছি, হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সব সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কিছু সময় লাগে। এরপরও তারা থ্রেট দেয়। এটা সম্পূর্ণ বাড়াবাড়ি।’

এই আলোচনায় অংশ নেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী।

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম জানান, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের প্রজ্ঞাপন প্রক্রিয়াধীন আছে। তিনি সাংবাদিকদের বলেন,‘কোটা সংস্কারের প্রজ্ঞাপনের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে ক্যাবিনেট সচিবকে প্রধান করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সেই কমিটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী এবং নারী কোটার বিষয়ে একটি সামারি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠিয়েছে। তবে আমি এখনও কোনও কাগজপত্র পাইনি। হয়তো কয়েকদিনের মধ্যেই পেয়ে যাবো। অবিলম্বে এই প্রজ্ঞাপন জারি কার্যকর করা হবে।’

প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া কোটা বাতিলের ঘোষণা প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশের দাবিতে পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী সোমবার ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জনসহ ধর্মঘট পালন করছেন আন্দোলনকারীরা। তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস থেকে মিছিল করে শাহবাগ মোড়ে এসে অবস্থান নিয়েছেন। প্রজ্ঞাপন জারি না হওয়া পর্যন্ত তারা এখানে অবস্থান করবেন বলে জানান।

/এফএস/টিএন/

লাইভ

টপ