এবার ভোটারপ্রতি সর্বোচ্চ ব্যয় ১০ টাকা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০৪:৩৭, নভেম্বর ০৯, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:১১, নভেম্বর ০৯, ২০১৮

নির্বাচন কমিশনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটারপ্রতি সর্বোচ্চ ব্যয় ১০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে একজন প্রার্থীর সর্বোচ্চ ব্যয় ২৫ লাখ টাকা বহাল রাখা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) রাতে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। এর আগে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটারপ্রতি ব্যয় ধরা হয়েছিল ৮ টাকা।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, আরপিওর ৪৪বি(৩) অনুযায়ী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিটি নির্বাচনি এলাকায় ভোটারপ্রতি নির্বাচনি ব্যয় ১০ টাকা নির্ধারণ করা হলো। তবে শর্ত হলো যে, উক্ত নির্বাচনি এলাকার ব্যয় সর্বোচ্চ ২৫ লাখ টাকার বেশি হবে না।

কমিশন সূত্র জানিয়েছে, দ্রব্যমূল্যসহ দেশের সার্বিক ব্যবস্থা বিবেচনা করে নির্বাচন কমিশন ভোটারপ্রতি সর্বোচ্চ ব্যয় নির্ধারণ করে থাকে। তবে ভোটার যত বেশি হোক না কেন প্রার্থীর মোট ব্যয় ২৫ লাখের বেশি হতে পারবে না।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, কোনও আসনে দুই লাখের কম ভোটার আবার কোথাও সাত লাখের বেশি ভোটার রয়েছে। কিন্তু ভোটার সংখ্যা যাই-ই হোক না কেন, গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, ১৯৭২ (আরপিও)-এ একজন প্রার্থীর সর্বোচ্চ ব্যয় ২৫ লাখ টাকা নির্ধারিত রয়েছে। আসনভিত্তিক সর্বনিম্ন ভোটার সংখ্যা বিবেচনা রেখে ভোটারপ্রতি ১০ টাকা ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে।

ইসির সর্বোচ্চ ব্যয়ের নির্দেশনা পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, সর্বোচ্চ ব্যয় ২৫ লাখ নির্ধারিত থাকলেও এবার দেশের সবচেয়ে কম ভোটারের (১৭৮৭৮৫ ভোট) আসন ঝালকাঠি ১-এর একজন প্রার্থী মোট ১৭ লাখ ৮৭ হাজার ৮৫০ টাকার বেশি ব্যয় করতে পারবেন না। আবার ভোটার প্রতি সর্বোচ্চ ব্যয় ১০ টাকা নির্ধারণ হলেও দেশের সবচেয়ে বেশি ভোটারের আসন (৭৪৭৩০১ ভোট) ঢাকা ১৯-এর ভোটারপ্রতি সর্বোচ্চ ব্যয় করা যাবে ৩ টাকা ৩৫ পয়সা।

/ইএইচএস/এসএসএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ