প্রকৃত হিসাবে হজের ব্যয় বাড়েনি: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৩৪, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:২১, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯

প্রেস ব্রিফিংয়ে অন্যদের মধ্যে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহপ্রকৃত হিসাবে এ বছর হজের ব্যয় বাড়েনি বলে দাবি করেছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। তিনি বলেছেন, ‘অন্য বছরের স্বাভাবিক ব্যয়বৃদ্ধির তুলনায় এ বছর হজের ব্যয় বাড়েনি, বরং কমেছে।’

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।
শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, ‘গত বছর প্যাকেজ ১-এর হজযাত্রীদের জন্য সব মিলিয়ে ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছিল তিন লাখ ৯৭ হাজার ৯২৯ টাকা। এ বছর হজযাত্রীদের বিমান ভাড়ার প্রস্তাব করা হয়েছিল এক লাখ ৪৮ হাজার টাকা, যা গত বছরের তুলনায় ২০ হাজার টাকা বেশি। এর সঙ্গে সৌদি সরকারের বাড়ানো ২৪ হাজার ৯৮১ টাকার কর যোগ হবে। সে হিসাবে এ বছর প্যাকেজ ১-এর হজযাত্রীদের জন্য সর্বমোট খরচ প্রস্তাব করা হয়েছিল ৪ লাখ ৪২ হাজার ৯১০ টাকা। কিন্তু মন্ত্রিপরিষদ প্যাকেজ ১-এর হজযাত্রীদের জন্য সব মিলিয়ে ব্যয় নির্ধারণ করে চার লাখ ১৮ হাজার ৫১৬ টাকা। প্রকৃত হিসাবে গত বছরের চেয়ে এ বছর ২৪ হাজার ৪১০ টাকা ব্যয় কমেছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘গত বছর প্যাকেজ ২-এর হজযাত্রীদের জন্য সব মিলিয়ে ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছিল তিন লাখ ৩১ হাজার ৩৬০ টাকা। এ বছর হজযাত্রীদের বিমান ভাড়ার প্রস্তাব করা হয়েছিল এক লাখ ৪৮ হাজার টাকা, যা গত বছরের তুলনায় ২০ হাজার টাকা বেশি। এর সঙ্গে সৌদি আরব সরকারের বাড়ানো ১৯ হাজার ৩৫ টাকার কর যোগ হবে। সে হিসাবে এ বছর প্যাকেজ ২-এর হজযাত্রীদের জন্য সর্বমোট খরচ প্রস্তাব করা হয়েছিল তিন লাখ ৭০ হাজার ৩৯৫ টাকা। কিন্তু মন্ত্রিপরিষদ প্যাকেজ ২-এর এ বছরের হজযাত্রীদের জন্য সব মিলিয়ে ব্যয় নির্ধারণ করেছে তিন লাখ ৪৪ হাজার টাকা। প্রকৃত হিসাবে গত বছরের চেয়ে এ বছর ২৬ হাজার ৩৯৫ টাকা ব্যয় কমেছে।’
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘গত বছরের চেয়ে এ বছর সার্ভিস চার্জ বৃদ্ধি, অতিরিক্ত করারোপ এবং পরিবহন ব্যয় দ্বিগুণের বেশি করেছে সৌদি আরব। এতে হজের খরচ ১৫ হাজার ৩২৬ টাকা ৫০ পয়সা বেড়েছে। গত বছরের অতিরিক্ত সার্ভিস চার্জের ওপর ১২ শতাংশ করারোপ করায় অতিরিক্ত তিন হাজার ৭০৯ টাকা হজের খরচ বেড়েছে। এছাড়া, সৌদি সরকার কর্তৃক করারোপ করায় আরও ২৫ দশমিক ২৫ টাকা খরচ বেড়েছে। প্যাকেজ ১-এর হজযাত্রীদের জন্য এ বছর ট্রেন ভাড়া পাঁচ হাজার ৯৪৫ টাকা ৫০ পয়সা বেড়েছে। সৌদি সরকার কর্তৃক সর্বমোট ২৫ হাজার ছয় টাকা ২৫ পয়সা বেড়েছে।’
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘সৌদি সরকার কর্তৃক ব্যয়বৃদ্ধির বিষয়টি বাংলাদেশসহ পৃথিবীর সব দেশের হজযাত্রীদের জন্য প্রযোজ্য।’
এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় সর্বনিম্ন খরচ হবে সরকারি ব্যবস্থাপনার প্যাকেজ ২-এর সমান; কোনোমতেই এর নিচে নেওয়া যাবে না। কারণ, তা করা হলে হজযাত্রীদের সেবার মান হ্রাস পাবে, হজযাত্রীরা ভোগান্তিতে পড়বেন, যা কোনোমতেই আমরা সহ্য করবো না।’
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুসরণ করে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়, অন্য সব মন্ত্রণালয় ও হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশসহ (হাব) আমরা সবাই মিলে হজ ব্যবস্থাপনার উন্নতির লক্ষ্যে নিরলসভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছি। হজের খরচ কমানোর বিষয়ে আমরা সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়েছি। সে কারণে এ বছর হজের প্রকৃত খরচ কমেছে।’
সংবাদ ব্রিফিংয়ে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আনিছুর রহমানসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

/এসআই/এমএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ