সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে দেশবাসীকে সতর্ক থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১১:২৭, এপ্রিল ২৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:১০, এপ্রিল ২৫, ২০১৯

বঙ্গভবনে ভিডিও কনেফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (ছবি: ফোকাস বাংলা)দেশবাসী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘সন্ত্রাসের কারণে আমরা আট বছরের শিশু জায়ান চৌধুরীকে হারিয়েছি। আমার পরিবারের সবাইকে ১৫ আগস্টে হারিয়েছি। আমি চাই না, আর কোনও সন্তানের এভাবে মৃত্যু হোক। যারা এগুলো করে তারা ঘৃণা ছাড়া কিছুই পায় না।’

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ঢাকা-রাজশাহী-ঢাকা রুটে বিরতিহীন ‘বনলতা এক্সপ্রেস’ ট্রেনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘গোয়েন্দা সংস্থাসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও দেশবাসীকে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে। আমরা শান্তি চাই। ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আসার পর দেশে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের উত্থান ঘটে। শায়খ আবদুর রহমান ও বাংলা ভাইদের মতো সন্ত্রাসীদের জন্ম হয়। হরতালের নামে তারা মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। গাড়ি, বাস, ট্রাক ও লঞ্চ আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। বাবা দেখেছে চোখের সামনে ছেলে পুড়ে যাচ্ছে, মা দেখেছে সন্তান পুড়ে যাচ্ছে, ভাই দেখেছে বোন পুড়ে যাচ্ছে। আমরা এগুলো চাই না।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে হত্যার পর তারা ইতিহাস বিকৃত করে। দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের যে স্বপ্ন জাতির পিতা দেখেছিলেন তা রুদ্ধ করে দেওয়া হয়। ২১ বছর পর আমরা ক্ষমতায় আসি। আমাদের লক্ষ্য ছিল জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করা। কিন্তু ক্ষমতায় এসে দেখলাম, সবকিছুর অচল অবস্থা। ক্ষমতাসীনদের ছাড়া সাধারণ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হয়নি। ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে আমরা চেষ্টা করেছি, স্থবির অবস্থার একটা পরিবর্তন ঘটানোর। কিন্তু ২০০১ সালে তারা ক্ষমতায় এলে দেশে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে। এটি এখন বৈশ্বিক সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই সন্ত্রাসের কারণে শ্রীলঙ্কায় শিশু জায়ান ও নিউজিল্যান্ডে অনেক মুসলমান প্রাণ হারিয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘যারা ইসলাম ধর্মের নাম করে এগুলো করছে, তারা ইসলাম ধর্মেরই ক্ষতি করছে। সন্ত্রাসীদের কোনও ধর্ম নেই, দেশ নেই। এরা মানবজাতির শত্রু।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শিক্ষক, ছাত্র, যুব-তরুণ ও মসজিদের ইমামসহ সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন এবং জঙ্গিরা যে ইসলাম ও মানুষের শত্রু, সে বিষয়ে অন্যকে সচেতন করতে বলেছেন। শ্রীলঙ্কা ও নিউজিল্যান্ডে নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় আগামী শুক্রবার মসজিদে দোয়া করার জন্য ইমামদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ মানবতার বিরুদ্ধে। এদের বিরুদ্ধে কথা বলতে হবে। মানুষ কোনও অপরাধ করলে, তার বিচার করবে আল্লাহ নিজে। তাহলে ধর্ম রক্ষার নাম করে তারা কীভাবে মানুষ খুন করে। আমি আশা করি, ইমামরা মসজিদে খুতবার আগে এ ব্যাপারে আলোচনা করবেন। ইসলাম যে শান্তির ধর্ম সে বিষয়ে কথা বলবেন। এখানে সন্ত্রাসবাদের কোনও স্থান নেই।’ 

/আইএ/এপিএইচ/এমএমজে/

লাইভ

টপ