শুল্কমুক্ত সুবিধা নিয়ে আঙ্কারার সঙ্গে আলোচনা করবে ঢাকা

Send
শেখ শাহরিয়ার জামান
প্রকাশিত : ১১:১১, মে ২০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩৮, মে ২০, ২০১৯

বাংলাদেশ- তুরস্ক

বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের ওপর শুল্ক আরোপ করেছে তুরস্ক। ফলে দেশটির জনগণ সুলভ মূল্যে বাংলাদেশের পোশাক কিনতে পারছে না। বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে ঢাকা। আজ সোমবার (২০ মে) আঙ্কারায় অনুষ্ঠেয় দুই দেশের পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠকে এই শুল্ক তুলে নেওয়ার প্রস্তাব করবে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক আঙ্কারা থেকে মোবাইলে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা দুই দেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়াতে চাই এবং এজন্য শুল্কবাধা দূর করা প্রয়োজন।’

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, সেদেশে ২০১৩ সালে বাংলাদেশের রফতানি ছিল ১০০ কোটি ডলারের ওপরে। কিন্তু তিন বছরের ব্যবধানে এই পরিমাণ ১২ কোটি ডলার কমে যায়।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে তৈরি পোশাকের পাশাপাশি পাটজাত, চামড়াজাত ও সিরামিক পণ্য তুরস্কে রফতানি করে থাকে।

রোহিঙ্গা ইস্যু

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে তুরস্ক সব সময় বাংলাদেশকে সমর্থন দিয়ে আসছে। শুধু তাই নয়, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের জন্য তারা আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও বেশ সরব। এ প্রসঙ্গে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘শনিবার (১৮ মে) ইস্তানবুলে রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে অনুষ্ঠিত একটি অনুষ্ঠানে বর্তমান অবস্থা এবং সামনের দিনগুলোতে কী করণীয়, সে সম্পর্কে আমি তাদেরকে জানিয়েছি।’

বিষয়টি যাতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সব সময়ে সরব থাকে এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় যেন এ বিষয়ে আরও আগ্রহ নিয়ে কাজ করে এমনটাই চায় বাংলাদেশ বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব। বিশ্বের একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশ হিসেবে তুরস্ক এ বিষয়ে আরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে বলেও তিনি জানান।

অন্যান্য বিষয়

সন্ত্রাসবাদ, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিষয় এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে দুই দেশের পররাষ্ট্র সচিব সোমবারের (২০ মে) বৈঠকে আলোচনা করবেন বলে জানান শহীদুল হক।

তিনি বলেন, ‘দুই দেশ সব ধরনের সন্ত্রাসের ঘটনাকে নিন্দা করে এবং বিষয়টি কীভাবে প্রতিরোধ করা যায়, সে ব্যাপারেও একে অন্যকে সহায়তা করে থাকে।’

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বিষয়েও উভয় দেশের অবস্থান এক এবং আরও বৃহত্তর পরিসরে এই দুটি দেশ কীভাবে নিজেদের স্বার্থ রক্ষা করতে পারে, তা নিয়েও আলোচনা করবেন দুই দেশের সচিবরা। 

/এসএসজেড/এপিএইচ/এমএমজে/

লাইভ

টপ