সুনীল অর্থনীতিতে জিডিপি বাড়বে ২ শতাংশ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:৫৯, জুন ১৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৬, জুন ১৩, ২০১৯

বাজেট বক্তৃতায় সমুদ্র অর্থনীতির বিষয় তুলে ধরেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল।

বাংলাদেশের ১ লাখ ১৮ হাজার ৮১৩ বর্গকিলোমিটার সমুদ্র এলাকার সম্ভাবনাময় সম্পদ কাজে লাগাতে পারলে জিডিপি’র ২ শতাংশ বৃদ্ধি সম্ভব। বৃহস্পতিবার  জাতীয় সংসদের আসন্ন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট বক্তৃতায় এ কথা বলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল।

জাতীয় সংসদের আসন্ন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পেশ করার সময় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল অসুস্থ হয়ে পড়লে তার হয়ে সংসদে বাজেট বক্তৃতা পেশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিকাল ৪টা ১০ মিনিট থেকে তিনি অর্থমন্ত্রীর পক্ষে বাজেট বক্তৃতাটি পড়েন। এছাড়া অপঠিত অংশ পঠিত বলে গণ্য হবে বলেও ঘোষণা দেন স্পিকার।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল বলেন, আন্তর্জাতিক সমুদ্র  আদালতের রায়ে সমুদ্র বিজয়ের মাধ্যমে প্রতিবেশী মিয়ানমার ও ভারতের কাছ থেকে বাংলাদেশ ১ লাখ ১৮ হাজার ৮১৩ বর্গকিলোমিটার সমুদ্রের একচ্ছত্র অধিকার লাভ করে, যা আরও একটি বাংলাদেশের প্রায় সমপরিমাণ। বঙ্গোপসাগরের উপকূলীয়  এলাকায় রয়েছে ১৩টিরও বেশি ভারি খনিজ পদার্থ যা অত্যন্ত মূল্যবান। রয়েছে ৪৭৫ প্রজাতির মাছ, ৩৬ প্রজাতির চিংড়ি, সামুদ্রিক শৈবাল।  সম্ভাবনাময় এ সম্পদ কাজে লাগাতে পারলে আমাদের জিডিপি’র ২ শতাংশ বাড়ানো সম্ভব। বিপুল সম্ভাবনাময় এ সম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্য প্রস্তাবিত কৌশলগুলো হলো, সামুদ্রিক সম্পদের বহুমাত্রিক জরিপ দ্রুত সম্পন্ন করা, উপকূলীয় জাহাজের সংখ্যা বাড়ানো, সমুদ্রবন্দর আধুনিকায়ন, সমুদ্রে  ইকোটুরিজম, ব্যক্তিগত নৌবিহার কার্যক্রম চালু করা।

 

/সিএ/টিএন/

লাইভ

টপ