‘২ জুলাইয়ের পর দেশের কোথাও যেন মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ না থাকে’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:২৫, জুন ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪৫, জুন ২৪, ২০১৯




ওষুধনির্ধারিত ‘বিন’ ছাড়া ফার্মেসিগুলোর কোথাও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ মজুদ করা যাবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান। তিনি বলেন, ‘২ জুলাইয়ের পর দেশের কোথাও যেন মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ না থাকে।’ সোমবার (২৪ জুন) পুরান ঢাকার একটি কমিউনিটি হলে আয়োজিত ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের সঙ্গে বাংলাদেশ কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট (বিসিডিএস) সমিতির মত-বিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘উচ্চ আদালতের নির্দেশ হচ্ছে, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সরাতে হবে। আমরা এ লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।

বিসিডিএস’র সদস্যদের প্রশ্ন করে মহাপরিচালক বলেন, ‘‘ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ হলে সেটি ভিন্ন বাক্সে রাখতে হবে। সেখানে লাল কালিতে লেখা থাকতে হবে, ‘মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ, বিক্রয়ের জন্য নহে’। কিন্তু মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সেটা পাননি। তাহলে কি সে কাজ আমাদের ঠিক হয়েছে?’’

দুই বছর আগে ওষুধের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে, সে রকম ওষুধও অভিযানে পাওয়া গেছে দাবি করে মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার ছয় মাস আগে থেকে ওষুধ কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অথবা তার আগেই সে ওষুধ রিপ্লেস করতে হবে।’ এ সব বিষয়ে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য কেবল ঢাকা নয়, ঢাকার বাইরের বিভাগ ও জেলাগুলোয় অধিদফতর থেকে কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।
এ সময় বিসিডিএস’র পক্ষ থেকে ৮ দফা দাবী জানানো হয় অধিদফতরের মহাপরিচালকের কাছে।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সভাপতি মো. সাদিকুর রহমান, সমিতির প্রায় ৮০০ সদস্য, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শরীফ আহমদ, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারসহ অধিদফতরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

/এসও/এমএনএইচ/

লাইভ

টপ