দেশের মানুষের কল্যাণ করাই আ.লীগের একমাত্র লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০১:৫৭, জুন ২৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:০৫, জুন ২৫, ২০১৯

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (ফাইল ছবি)দেশের মানুষের কল্যাণ করাই আওয়ামী লীগের একমাত্র লক্ষ্য বলে জানিয়েছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘দলের নেতাকর্মীদের মনে রাখতে হবে, আমাদের পূর্বসূরিরা যেভাবে আত্মত্যাগ করে গেছেন, তেমনিভাবে প্রত্যেককে জাতির পিতার আদর্শ অনুসরণ করে চলতে হবে। আমরা অহমিকায় নয়, মাটি ও মানুষের সঙ্গে মিশে চলবো। সব সময় দেশের মানুষের কল্যাণে নিয়োজিত থাকবো, যাতে বাংলাদেশের মানুষ আন্তর্জাতিকভাবে মাথা উঁচু করে মর্যাদা নিয়ে চলতে পারে।’

সোমবার (২৪ জুন) বিকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ এই উপমহাদেশের প্রাচীন দলগুলোর মধ্যে অন্যতম। এটি একটি সুসংগঠিত দল। যে দলকে শত আঘাতেও কেউ ছিন্নভিন্ন করতে পারেনি, ভবিষ্যতেও পারবে না।’

দলের নেতাকর্মীদের অবদানের কথা স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কত আত্মত্যাগ! আওয়ামী লীগের ইতিহাস যদি দেখি, আমার মনে হয় না আর কোনও রাজনৈতিক দল একটা দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য এতটা ত্যাগ স্বীকার করেছে। এত নির্যাতন সহ্য করেছে।’ তিনি বলেন, ‘ভাঙা গড়ার খেলা তো আছেই। যতবারই ষড়যন্ত্র করে ভাঙার চেষ্টা হয়েছে, দলটি আরও শক্তিশালী হয়েছে। যেমন, হীরার টুকরা যত কাটে, তত সেটা উজ্জল হয়; আওয়ামী লীগ ঠিক সেটাই হয়েছে। যে যখন ক্ষমতায় এসেছে, আগেই আওয়ামী লীগের ওপর আঘাত হেনেছে, ধ্বংস করার চেষ্টা করেছে, এই দলটা তখন আরও বেশি শক্তিশালী হয়েছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘এ দেশে কেউ হতদরিদ্র থাকবে না। আমাদের প্রতিজ্ঞা হচ্ছে, বাংলাদেশের প্রতিটা মানুষ ঘর পাবে। এমনভাবে কাজ করছি, যাতে প্রত্যেকটি মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়। অন্তত জীবনের ন্যূনতম চাহিদা যেন মানুষ পূরণ করতে পারে।’ তিনি বলেন, ‘আমরা ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দিচ্ছি। খাদ্যের ব্যবস্থা করছি। মানুষের কল্যাণ হচ্ছে। জীবন মান উন্নত হচ্ছে। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে। আমি এ টুকুই চাইবো, প্রজন্মের পর প্রজন্ম যেন সুন্দর ও উন্নত জীবন পায়। আর সেটা নিশ্চিত করার দায়িত্ব অবশ্যই আমাদের রয়েছে।’ জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ গড়ে তুলতে পারবে বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন শেখ হাসিনা।

সরকার প্রধান বলেন, ‘আজকের বাংলাদেশ সারাবিশ্বে সম্মান পাচ্ছে। এ দেশ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় এসেছে, আর যাই হোক, দেশের মানুষ কিছু পেয়েছে। তাদের ভাগ্য পরিবর্তন হয়েছে।’

শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন—অধ্যাপক মুনতাসির মামুন, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মোহাম্মদ নাসিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক,আব্দুর রহমান এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাত ও উত্তরের সভাপতি এ কে এম রহমত উল্লাহ। এছাড়া মঞ্চে দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।

যৌথভাবে সভা পরিচালনা করেন দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন।

 

 

/এমএইচবি/আইএ/

লাইভ

টপ