মাদক থেকে যুবসমাজকে রক্ষা করাই আমাদের অঙ্গীকার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৫:০৯, জুন ২৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:২১, জুন ২৫, ২০১৯

বক্তব্য রাখছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, আমাদের অঙ্গীকার মাদকের ভয়াবহতা থেকে যুবসমাজকে রক্ষা করা।  এ লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘মাদকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল প্রচারণা চালানো হচ্ছে।  এ জন্য ২০১৮ সালে  ৮ হাজার ৮০০টি সেমিনার হয়েছে।  ২৮ হাজারের বেশি শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে মাদকবিরোধী কমিটি গঠিত হয়েছে।  আমরা প্রতি জেলায় মাদক নিরাময় কেন্দ্রও প্রতিষ্ঠা করছি।’

মঙ্গলবার (২৫ জুন) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।
বুধবার (২৬ জুন) আন্তর্জাতিক মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস।  ১৯৮৮ সাল থেকে জাতিসংঘের সিদ্ধান্তে এ দিবসটি পালিত হয়ে আসছে।  এবারের প্রতিবাদ্য বিষয় ‘সুস্বাস্থ্যই সুবিচার, মাদকমুক্তির অঙ্গীকার’।  দিবসটি পালনের জন্য সরকার ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করা হচ্ছে।  মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের গতিশীলতা ও জনবল বেড়েছে।  মাদকবিরোধী আইন-২০১৮ কে যুগোপযোগী করা হয়েছে। মাদকবিরোধী জনমত তৈরি করা হচ্ছে।  মসজিদে জুমার নামাজের বয়ানে মাদকের বিরুদ্ধে সচেতন হওয়ার জন্য বলা হচ্ছে। এছাড়া, মাদকবিরোধী পোস্টার, লিফলেট টানানো হচ্ছে, টকশো করা হচ্ছে।’ 
আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘মাদক ব্যবহার বন্ধে আমরা তিনটি কর্মকৌশল নিয়েছি।  এগুলো হচ্ছে— চাহিদা, সরবরাহ ও ক্ষতি হ্রাস। আমরা বিশ্বাস করি, অবশ্যই মাদক নির্মূল করতে পারবো।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আগে দেশে তামাক ব্যবহার করতো ৪৩ দশমিক তিন শতাংশ মানুষ। ২০১৭ সালের জরিপে দেখা গেছে তা ৩৫ দশমিক তিন শতাংশে নেমেছে।’  

/এসআই/জেইউ/এআর/এপিএইচ/

লাইভ

টপ