চাহিদার চেয়ে কোরবানির পশু দশ লাখ বেশি আছে: প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৫২, জুলাই ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৩১, জুলাই ১৭, ২০১৯


প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

কোরবানির চাহিদা মেটাতে দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণ পশু আছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু। তিনি বলেন, আগামী কোরবানির জন্য দেশে এক কোটি ১৮ লাখ পশু প্রস্তুত আছে। আমাদের প্রয়োজন এক কোটি সাত লাখ পশু। গত বছর আমরা পশু কোরবানি দিয়েছি এক কোটি পাঁচ লাখ। কাজেই কোরবানির পশু নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কারণ নেই, দশ লাখ পশু অতিরিক্ত আছে।’

বুধবার (১৭ জুলাই) সচিবালয়ের মন্ত্রিসভা কক্ষে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের চতুর্থ দিনের সপ্তম কার্য অধিবেশনে ডিসিদের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

তিনি জানান, কোরবানির সময় চোরাইপথে মাত্র ৯০ হাজার পশু দেশে প্রবেশ করে। এটা আমাদের বাজার ও পশুসম্পদে প্রভাব ফেলে না।

বন্যায় বিভিন্ন মৎস্য খামারের ক্ষতি হয়েছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘বন্যায় পুকুর ডুবে গেছে, এ কথা সত্য। তবে মাছ আমাদের দেশের ভেতরেই আছে। হয়তো খামারিরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন, তবে দেশীয় উৎপাদন কমবে না।’

ক্ষতিগ্রস্ত খামারিদের পোনাসহ সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ করার যে সময় তা গবেষণা করেই নির্ধারণ করা হয়েছে। বাংলাদেশের জলসীমায় ভিন্ন দেশের কোনও ট্রলার প্রবেশ করতে পারে না। আমাদের কোস্টগার্ডসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হেলিকপ্টারেও টহল দিচ্ছে। অঞ্চলভেদে ইলিশের প্রজনন সময় ভিন্ন ভিন্ন বলে বাংলাদেশ ও ভারতের ইলিশ ধরা নিষিদ্ধের সময় ভিন্ন হয়েছে।

/এসআই/টিটি/এমওএফ/

লাইভ

টপ