২২ আগস্ট ড্রিমলাইনার ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৬:৩৫, আগস্ট ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৫১, আগস্ট ১৯, ২০১৯

গাঙচিলবিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে নতুন যুক্ত হওয়া বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার গাঙচিল ২২ আগস্ট আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিন হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে এই বিমানটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে।

এরআগে, গত ২৫ জুলাই বিমানটি সিয়াটল থেকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। ‘গাঙচিল’ যুক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে ড্রিমলাইনার বিমানের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩টিতে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পছন্দে বিমানটির নামকরণ করা হয়েছে। এই বিমানটি দিয়ে প্রাথমিকভাবে ঢাকা-আবুধাবী রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।

জানতে চাইলে বিমানের উপ মহাব্যবস্থাপক ( জনসংযোগ)  তাহের খন্দকার বলেন, ‘২২ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী ড্রিমলাইনার গাঙচিল আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন। একই দিন বিকেল ৫টায় ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে আবুধাবী ফ্লাইট যাবে।’

জানা গেছে, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ২০০৮ সালে মার্কিন বিমান নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে ১০টি নতুন বিমান কেনার জন্য ২১০ কোটি ইউএস ডলারের চুক্তি করে। সেই চুক্তির আওতায় ইতোমধ্যে বহরে যুক্ত হয়েছে ছয়টি বিমান। বাকি চারটি বিমান হলো বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার। এর মধ্যে তিনটি বিমান বহরে যুক্ত হলো। বাকি একটি বিমানের একটি এই বছরের সেপ্টেম্বরে আসবে।

আকাশবীণায় আসন সংখ্যা ২৭১টি। এরমধ্যে বিজনেস ক্লাস ২৪টি এবং ২৪৭টি ইকোনমিক ক্লাস। এটি ঘণ্টায় ৬৫০ মাইল বেগে উড়তে সক্ষম। বিমানটির ইঞ্জিন প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান জেনারেল ইলেকট্রিক (জিই)। বিমানটি নিয়ন্ত্রিত হবে ইলেকট্রিক ফ্লাইট সিস্টেমে। কম্পোজিট ম্যাটেরিয়াল দিয়ে তৈরি হওয়ায় এই বিমান ওজনে হালকা। ভূমি থেকে বিমানটির উচ্চতা ৫৬ ফুট। দু’টি পাখার আয়তন ১৯৭ ফুট। বিমানটির যাত্রীদের ইন্টারনেট ব্যবহারের জন্য রয়েছে ওয়াইফাই সুবিধা। এছাড়া, আকাশে উড্ডয়নের সময় ফোন কল করতে পারবেন যাত্রীরা।

 

/সিএ/এমএনএইচ/

লাইভ

টপ