‘টিআর-কাবিখার বদলে দুর্যোগ সহনীয় ঘর পাবে প্রতিবন্ধী, বেদে ও হিজড়ারা’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:৩০, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৪৭, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯

সভায় ডা. মো. এনামুর রহমান ও সায়মা ওয়াজেদ পুতুল

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেছেন, ‘সরকারের উদ্যোগে গৃহহীনদের জন্য দুর্যোগ সহনীয় ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হবে। টেস্ট রিলিফ (টিআর) ও কাজের বিনিময়ে খাদ্যের (কাবিখা) বদলে তিন লাখ টাকা ব্যয়ে এ ঘর নির্মাণ করা হবে। আগে প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হতো দুইলাখ ৮০ হাজার টাকা। প্রতিবন্ধী, বেদে এবং হিজড়া সম্প্রদায়ের গৃহহীনদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এসব ঘর বানিয়ে দেওয়া হবে।’

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) ঢাকায় সচিবালয়ের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ‘ডিজাবিলিটি ইনক্লুসিভ ডিজাস্টার রিস্ক ম্যানেজমেন্ট’ বিষয়ক জাতীয় টাস্কফোর্সের চতুর্থ সভা শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী জানান, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রস্তুতকৃত তালিকা অনুযায়ী দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাসকারী গরিব মানুষদের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক দুর্যোগ সহনীয় ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া, বন্যার মতো দুর্যোগ মোকাবিলায় মাল্টি-পারপাস এক্সেসেবল রেসকিউ বোট নির্মাণ করা হবে; যেন বন্যাকবলিত লোকজন ছাড়াও এ বোটে গৃহপালিত পশু-পাখি বহন করা যায়।

সভায় প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, ২০২০ সালে ইন্দোনেশিয়ায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও প্রতিববন্ধীদের নিয়ে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। ওই সম্মেলনে বাংলাদেশ অংশ নেবে।

এসময় অ্যাডভোকেসি গ্রুপ অন ডিজেবিলিটি ইনক্লুসিভ ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের প্রধান উপদেষ্টা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল (মিজ সায়মা হোসেন), দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. শাহ কামাল, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এবং টাস্ক ফোর্সের অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

/এসআই/এমএ/

লাইভ

টপ