পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের আগে জানালে ভালো হতো: প্রধানমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:২৬, অক্টোবর ০৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:০২, অক্টোবর ০৪, ২০১৯

কোনও পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রসিকতার সুরে ভারতের সমালোচনা করেছেন। শুক্রবার নয়া দিল্লিতে এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের জন্য পেঁয়াজ পাওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। আমি জানি না কেন আপনারা সরবরাহ বন্ধ করেছেন। আমি রাঁধুনিকে বলে দিয়েছি পেঁয়াজ ছাড়া রান্না করতে’। এ সময় উপস্থিত দর্শকরা হেসে ওঠেন।

 

২৯ সেপ্টেম্বর অতিরিক্ত বৃষ্টিতে পেঁয়াজের উৎপাদন হ্রাস ও এর মূল্যবৃদ্ধির কারণে রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে দিল্লি।

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিটে যোগ দিতে চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) ভারতে গেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই সামিটে তিনি বাংলাদেশকে দ্রুত উন্নয়নশীল অর্থনৈতিক ও আকর্ষণীয় বাণিজ্যিক ক্ষেত্র হিসেবে উল্লেখ করেছেন। টানা তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণের পর শেখ হাসিনার এটাই প্রথম ভারত সফর। এ সফরে তিনি ভারতের রাষ্ট্রপতি শ্রী রামনাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতি সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

পেঁয়াজের দাম নিজেদের বাজারে নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে গত ২৯ সেপ্টেম্বর এর রফতানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বৈদেশিক বাণিজ্য শাখা। এর কয়েক সপ্তাহ আগে থেকে পেঁয়াজের দাম আকাশছোঁয়া হয়েছে সেখানে। রাজধানী দিল্লি, মুম্বাইসহ অন্যান্য প্রদেশে ৬০-৭০ রুপি কেজি দরে বিক্রি হচ্ছিল পেঁয়াজ, যা গত ছয় বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সে সময় ওই নিষেধাজ্ঞা জারি করে মোদি সরকার।

ভারতের নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নিষেধাজ্ঞা জারির আগে আমাদের জানালে ভালো হতো’। মৃদু হেসে তিনি আরও বলেন, ‘হঠাৎ এটা বন্ধ করে দেওয়ায় ব্যাপারটা খুব কঠিন হয়ে গেলো। এর পরে যদি কখনও আপনারা এমন সিদ্ধান্ত নেন, আগে থেকে জানালে খুব ভালো হয়।’

/এইচকে/এএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ