গভর্নরের ওপর ক্ষুব্ধ প্রধানমন্ত্রী

Send
পাভেল হায়দার চৌধুরী
প্রকাশিত : ২৩:৫১, মার্চ ১৩, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৫৬, মার্চ ১৩, ২০১৬





শেখ হাসিনাহ্যাকিংয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা লোপাটের ঘটনায় চরম ক্ষুব্ধ হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, এ ইস্যুতে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমানের দায় এড়ানোর কোনও সুযোগ নেই। এ ঘটনাকে ধামাচাপা দেওয়ার যে চেষ্টা হয়েছে, তাতেও গভর্নরের ওপর চটেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুধু তাই নয়, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এ ঘটনাকে ধামাচাপা দেওয়ার আসল রহস্য কী, তাও উদঘাটন করতে হবে। এ চেষ্টায় কারা জড়িত তাও খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন সরকার প্রধান।
রবিবার (১৩ মার্চ)  সন্ধ্যায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সংক্রান্ত দলের মনোনয়ন বোর্ডের এক সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। বৈঠকে উপস্থিত একাধিক সদস্য এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বৈঠকটি  প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসবভন গণভবনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন মনোনয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।
জানাগেছে, বৈঠকটি মনোনয়ন সংক্রান্ত হলেও শুরুতে বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা আত্মসাতের বিষয়টি আলোচনায় আসে। হ্যাকিংয়ের এ ঘটনায় বিস্মিত প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, এতগুলো টাকা সরিয়ে ফেলা হলো বাংলাদেশ ব্যাংক জেনেও গোপনীয়তা রক্ষা করার চেষ্টা করল কী করে?
সূত্র আরও জানায়, প্রধানমন্ত্রী বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে দোষী ব্যক্তিকে অবশ্যই শাস্তির আওতায় আনতে হবে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের দায়িত্বে অবহেলা হিসেবে দেখছেন সরকার প্রধান শেখ হাসিনা।  বৈঠকে উপস্থিত এক নেতা জানান, টাকা লোপাটের ঘটনাটি প্রধানমন্ত্রী সিরিয়াসলি নিয়েছেন। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর যে ক্ষোভ প্রকাশ পেয়েছে, তাতে গভর্নরকে সরে যেতে হতে পারে বলেও ওই সূত্রটি জানান।


সূত্র আরও জানায়, প্রধানমন্ত্রী বিষয়টি এত পরে জানার হেতু কী, তা খতিয়ে দেখছেন। বৈঠকে তৃতীয় দফায় অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের জন্যে তৃণমূল থেকে আসা প্রার্থী তালিকা  যাচাই-বাছাই করা হয়।
সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী বৈঠকে বলেন, জাতীয় আন্তর্জাতিকভাবে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। সবাই আমাদের প্রশংসা করতে শুরু করেছে। যুক্তরাজ্যের কার্গো বিমান বন্ধের ঘটনা, বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থ লোপাট- এ দুটি ঘটনা আমাদের পিছিয়ে দিয়েছে।

এর আগে বিকেলে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতও টাকা লোপাটের ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার কারণে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের ওপর নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি আরও বলেন, টাকা গচ্চা যাওয়ার ঘটনাটি নিয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন। জানাগেছে, সোমবার (১৪ মার্চ) প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিসভার বৈঠকে যোগ দিতে সচিবালয়ে আসবেন। সেখানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী ।
এপিএইচ/ 

লাইভ

টপ