৬ মাসের মধ্যে আবাসিক এলাকার অবৈধ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান সরাতে হবে

৬ মাসের মধ্যে আবাসিক এলাকার অবৈধ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান সরাতে হবে

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট১৪:১৮, এপ্রিল ০৪, ২০১৬

মন্ত্রিসভার বৈঠক (ফাইল ছবি)

রাজধানী ও সব মহানগরের আবাসিক এলাকা থেকে অবৈধ ও অনুমোদিত সব বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ও স্থাপনা আগামী ছয় মাসের মধ্যে সরিয়ে নিতে হবে। না হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে। এ সংক্রান্ত এক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়েছে।

সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বৈঠক শেষে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম এ কথা জানান।

তিনি জানান, বৈঠকে নগর এলাকার আবাসিক প্লট ও ভবনে রেস্টুরেন্ট, কারখানা, হাসপাতাল এবং বারসহ নানাবিধ বাণিজ্যিক কার্যক্রম পরিচালনায় সমস্যা নিরসনে কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

এই অবহিতকরণের পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রিসভা পরিকল্পিত নগরায়ণ বাস্তবায়নে চারটি সুপারিশ করে। সুপারিশগুলো হচ্ছে- ভবনের বেজমেন্টে গাড়ি পার্কিং নিশ্চিত করা, আবাসিক এলাকায় বারের লাইসেন্স না দেওয়া ও বর্তমানে যেগুলো আছে সেগুলো সরিয়ে নেওয়া, আবাসিক এলাকার গেস্ট হাউজ অপসারণ করা এবং বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানসমূহ ৬ মাসের মধ্যে অপসারণ করা।

সচিব বলেন, ‘সরকার চায় আবাসিক এলাকার চরিত্র ফিরিয়ে আনতে। এখানে কোনও বাণিজ্যিক কার্যক্রম চলতে পারবে না। দেশের সবগুলো নগরের জন্য এই সুপারিশ প্রযোজ্য। তবে যেসব প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন রয়েছে সেগুলো ছয় মাসের মধ্যে না হলেও পর্যায়ক্রমে সরাতে হবে।’

মোবাইল সিমের বায়োমেট্রিক রেজিস্ট্রেশন বিষয়েও মন্ত্রিসভার বৈঠকে আলোচনা হয় বলে জানান সচিব। মন্ত্রীরা সিম রেজিস্ট্রেশন নিয়ে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। সচিব বলেন, ‘আমরা সবাই আঙুলের ছাপ দিয়ে সিম রেজিস্ট্রেশন করেছি। এ নিয়ে বিভ্রান্ত হওয়ার কিছু নেই।’

এছাড়াও বৈঠকে কোড অব সিভিল প্রসিডিউর (সংশোধিত) অ্যাক্ট ২০১৬ খসড়ার নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়ে।

 

/ওএফ/এমও/এসটি/

লাইভ

টপ