আবুল বারকাতকে উকিল নোটিশ

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট১৪:০৯, এপ্রিল ০৬, ২০১৬

আবুল বারকাত

জনতা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক আবুল বারকাতের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ এনে একটি উকিল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নোটিশের জবাব না দিলে সংবিধান অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন নোটিশ পাঠানো আইনজীবী।

বুধবার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিশটি পাঠান সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। তিনি বলেন, প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার সামনেই তিনি বিচার বিভাগ নিয়ে মন্তব্য করেছেন।

গত ২ এপ্রিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে একটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে আলোচনার এক পর্যায়ে অর্থনীতিবিদ আবুল বারকাত গবেষণার তথ্য তুলে ধরে বলেন, ‘আমার বলতে দ্বিধা নেই, গবেষণাভিত্তিক কথা এটা, লোয়ার কোর্ট থেকে শুরু করে হাইকোর্ট পর্যন্ত আইনের রায় বেচাকেনা হয়।’

তিনি আরও বলেন, আবুল বারকাতের অপরাধ আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের চেয়েও মারাত্মক। কারণ মাহমুদুর রহমান শুধু বলেছিলেন ‘চেম্বার কোর্ট মানেই স্টে’। তিনি তার চেয়ে কঠিন কথা বলেছেন। তাই তাকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই আদালত অবমাননার জবাব দিতে হবে। সঠিক সময়ের মধ্যে জবাব না দিলে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

অনুষ্ঠানেই আবুল বারকাতের বক্তৃতার পরে তার জবাবে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আমি সদর্পে বলতে পারি, আমার বিচার বিভাগে কোনও মামলার রায় বিক্রি হয় না। হ্যাঁ, এখন হচ্ছে, আমি অস্বীকার করছি না। বড়জোড় এটা পাঁচ থেকে দশ শতাংশ হতে পারে।’

ওইদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে বাংলাদেশে আইনের সংস্কার ও আইন কমিশন এবং সিলেক্টেড রাইটিংস অন ইন্টারন্যাশনাল ল: কনস্টিটিউশনাল ল অ্যান্ড হিউম্যান রাইটস শীর্ষক দুটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। বই দুটির লেখক আইন কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. এম শাহ আলম।

/ইউআই/এসটি/

লাইভ

টপ