জাতীয় পরিচয়ই প্রধান, ধর্মীয় মূল্যবোধের অবস্থা ফিফটি-ফিফটি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:২৩, মে ২৭, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪৪, মে ২৭, ২০১৭

ধর্মীয় কিংবা অন্য কোনও পরিচয় নয়, জাতিগত পরিচয়ই মুখ্য দেশের বেশিরভাগ মানুষের কাছে। আর তরুণদের মধ্যে ধর্মীয় বিশ্বাস বা মূল্যবোধের অবস্থার প্রশ্নে মিশ্র ফল  পাওয়া গেছে।
আপনার ব্যক্তিগত পরিচয় বা সত্তাবোধের মধ্যে কোন উপাদানটি আপনার কাছে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ?আপনার ব্যক্তিগত পরিচয় বা সত্তাবোধের মধ্যে কোন উপাদানটি আপনার কাছে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ— এমন প্রশ্ন করা হয়েছিল সম্প্রতি দেশব্যাপী বাংলা ট্রিবিউন পরিচালিত এক জরিপে। প্রশ্নের জবাবে ৪৮ শতাংশেরও বেশি উত্তরদাতা জানিয়েছেন জাতিগত পরিচয়টাই তাদের কাছে মুখ্য।
১৭ শতাংশ জানিয়েছেন তাদের কাছে ধর্মীয় পরিচয়টাই মুখ্য। আবার ১২ শতাংশের মতে তারা ভাষাগত কিংবা সাংস্কৃতিক পরিচয়কেই সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। ১০ শতাংশ তাদের পেশাগত পরিচয়কে বেশি গুরুত্ব দেন এবং পারিবারিক বা গোষ্ঠীগত পরিচয়কে গুরুত্ব দিয়েছেন ৮ শতাংশ অংশগ্রহণকারী।


তরুণদের মধ্যে ধর্মীয় বিশ্বাস ও মূল্যবোধের অবস্থা কেমন?এদিকে তরুণদের মধ্যে ধর্মীয় বিশ্বাস বা মূল্যবোধের অবস্থা কেমন—এই প্রশ্নে মিশ্র ফল পাওয়া গেছে। অর্ধেকের মতে, তরুণদের ধর্মীয় বিশ্বাস বা মূল্যবোধের যথেষ্ট অভাব রয়েছে, বাকি অর্ধেক ভিন্নমত পোষণ করেছেন। ৪৮ শতাংশের মতে, তাদের মধ্যে ধর্মীয় বিশ্বাস ভালোভাবেই বিদ্যমান আর ৫২ শতাংশের মতে, তরুণদের মধ্যে ধর্মীয় বিশ্বাস বা মূল্যবোধের যথেষ্ট অভাব রয়েছে।

জরিপ পরিচালনা:

 
বাংলা ট্রিবিউন
জরিপ পরিচালনার সময়কাল:
১ এপ্রিল - ৬ এপ্রিল, ২০১৭
নমুনা সংগ্রহের প্রক্রিয়া:
 
  • দৈবচয়ন পদ্ধতিতে সারাদেশের ৮টি বিভাগীয় শহর ও ২৪টি জেলার গ্রামীণ অঞ্চল থেকে ২ হাজার ৪০০ জন তরুণের ওপর এই জরিপটি পরিচালনা করা হয়।
  • শহুরে ও গ্রামীণ জনপদের সমান সংখ্যক তরুণের কাছ থেকে নমুনা নেওয়া হয়েছে।
  • প্রতিটি বিভাগের বিভাগীয় শহরের বাসিন্দাদের শহুরে হিসেবে ধরা হয়েছে।
  • জেলার গ্রামাঞ্চলের প্রতিনিধিদের গ্রামীণ জনপদের প্রতিনিধি হিসেবে ধরা হয়েছে।
  • প্রতিটি বিভাগীয় শহর থেকে ১৫০ জনের ওপর জরিপ পরিচালনা করা হয়েছে।
  • গ্রামীণ ডাটার জন্য বিভাগীয় শহর ছাড়া তিনটি জেলাকে নির্বাচন করা হয়েছে।
  • বড় বিভাগের ক্ষেত্রে বিভাগীয় শহর ছাড়াত জেলাগুলো দৈবচয়নে নির্ধারণ করা হয়েছে।
  • প্রতিটি জেলার গ্রামীণ জনপদ থেকে ৫০ জনের ওপর জরিপ চালানো হয়েছে।


/এস জি/ এমএনএইচ/

লাইভ

টপ