Vision  ad on bangla Tribune

পুরস্কার পেলেন সেই সাহসী কনস্টেবল পারভেজ

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট২৩:০০, জুলাই ১৬, ২০১৭

কনস্টবল পারভেজের হাতে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন আইজিপি ও অন্যরাবাস দুর্ঘটনায় আটকা পরা ২৬ যাত্রীর জীবন বাঁচিয়ে আলোচনায় আসা সাহসী পুলিশ কনস্টবল মো. পারভেজ মিয়াকে পুরস্কৃত করেছে পুলিশ সদর দফতর। রবিবার (১৬ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ সদর দফতরের সম্মেলনকক্ষে সাহসিকতা ও মানবসেবার স্বীকৃতি হিসেবে পুলিশের আইজি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এসিআই মটরস লিমিটেড তাকে পুরস্কৃত করেছে।
অনুষ্ঠানে আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক নগদ পারভেজকে দিয়েছেন এক লাখ টাকা ও একটি ক্রেস্ট। অন্যদিকে, এসিআই মটরসের পক্ষ থেকে পারভেজকে দেওয়া হয়েছে একটি ইয়ামাহা স্যালুটো ১২৫ সিসি মোটরসাইকেল। আইজিপি ও এসিআই মটরসের চিফ বিজনেস অফিসার সুব্রত রঞ্জন দাস এসব পুরস্কার তুলে দেন।
অনুষ্ঠানে আইজিপি বলেন, ‘পুলিশ জনগণের কল্যাণে মানুষের জন্য কাজ করে। জনগণের নিরাপত্তা দিতে গিয়ে পুলিশ সদস্যরা জীবন দিতেও কুণ্ঠাবোধ করেন না। তারই এক উদাহরণ কনস্টেবল পারভেজ।’ পারভেজকে তার সাহসিকতার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে আইজিপি বলেন, ‘তার সাহসিকতা পুলিশ সদস্যদের অনুপ্রেরণা ও উৎসাহ জোগাবে।’ এসময় প্রতিটি পুলিশ সদস্যকে মানবিকতায় উদ্বুদ্ধ হয়ে জনসেবায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।
পারভেজকে পুরস্কৃত করতে এসিআই মটরসের উদ্যোগকে স্স্বাগত জানিয়ে আইজিপি বলেন, ‘সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে এ ধরনের কাজে অন্যান্য বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকেও এগিয়ে আসতে হবে।’
অনুষ্ঠানে পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি (প্রশাসন) মো. মোখলেসুর রহমান, ডিআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড প্ল্যানিং) মো. মহসিন হোসেন, ডিআইজি (এইচআরএম) রৌশন আরা বেগম, ডিআইজি (প্রশাসন) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন, ডিআইজি (অপারেশন্স) ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান, ডিআইজি (অর্থ) এ কে এম শহীদুর রহমান, ডিআইজি (হাইওয়ে) মো. আতিকুল ইসলাম এবং এসিআই মটরসের ডিজিএম খাইরুল আহসানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, গত ৭ জুলাই শুক্রবার সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দির গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ঢাকা থেকে চাঁদপুরগামী একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডোবায় পড়ে যায়। এসময় কুমিল্লার দাউদকান্দি হাইওয়ে থানায় কর্মরত কনস্টবল পারভেজ স্থির থাকতে পারেননি। তিনি ডোবার ময়লা, পঁচা দুর্গন্ধযুক্ত পানিতে ঝাঁপিয়ে পড়েন। নিজের জীবন বাজি রেখে বাসের জানালার কাঁচ ভেঙে সাত মাসের শিশুসহ প্রায় ২৬ জন যাত্রীর জীবন বাঁচান তিনি
/এআরআর/টিআর/

লাইভ

টপ