গৃহকর্মী আদুরীকে নির্যাতন: গৃহকর্ত্রী নদীর যাবজ্জীবন

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১১:৫১, জুলাই ১৮, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:০৯, জুলাই ১৮, ২০১৭

আদালতে আইনজীবীদের সঙ্গে আদুরীরাজধানীর মিরপুরের ডিওএইচএস-এর  একটি ডাস্টবিন থেকে উদ্ধার করা গৃহকর্মী আদুরীকে (১১) নির্যাতনের মামলায় গৃহকর্ত্রী নওরিন জাহান নদীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১ লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) ঢাকার ৩ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জয়শ্রী সমাদ্দার এ রায় দেন। রায় ঘোষণার শেষে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়।
এছাড়া এ মামলার আরেক আসামি নদীর মা ইসরাত জাহানকে খালাস দিয়েছেন আদালত। আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের বিশেষ কৌঁসুলি মাহমুদা আক্তার এ তথ্য জানান।
রায় ঘোষণার সময় এই মামলায় আসামি নওরিন জাহান নদীকে আদালতে হাজির করা হয়। এছাড়া নির্যাতনের শিকার গৃহকর্মী আদুরী ও তার মাসহ অন্যান্য আত্মীয় স্বজনরাও এসময় উপস্থিত ছিলেন।
রায় ঘোষণার শেষে আদুরী বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, সে এ রায়ে খুশি। তবে এ মামলায়  ইসরাত জাহানের মাকেও সাজা দিলে সে আরও খুশি হতো।
প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালে ২৩ সেপ্টেম্বর মিরপুরের ডিওএইচএস-এর  রাস্তায় ময়লা ফেলার ডাস্টবিন থেকে আদুরীকে উদ্ধার করে ক্যান্টনমেন্ট থানা পুলিশ। পরে ২৬ সেপ্টেম্বর আদুরীর মামা মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরী আসামিদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা দায়ের করেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারের উপ-পরিদর্শক কুইন আক্তার ওই বছরের ওই বছরের ২৯ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।
এর আগে আদুরী ২ অক্টোবর আদালতে ২২ ধারায়  জবানবন্দি দিয়েছিল। প্রধান আসামি নদী ১ অক্টোবর ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।
/এসআইটি/এআর/এপিএইচ/

লাইভ

টপ