অর্থমন্ত্রীকে ক্ষমা চেয়ে বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি সাংবাদিকদের

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৫:৩৫, আগস্ট ১১, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৫৫, আগস্ট ১১, ২০১৭

আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়েছে। শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) আয়োজিত সাংবাদিক সমাবেশ থেকে এ দাবি জানান সংগঠনের সভাপতি শাবান মাহমুদ।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজিত সমাবেশওয়েজবোর্ডের বিরুদ্ধে দেওয়া অর্থমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহার, নিংশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা এবং অবিলম্বে ৯ম ওয়েজবোর্ড গঠনের দাবিতে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। সমাবেশে শাবান মাহমুদ বলেন, ‘আজ সাংবাদিক সমাজকে অপমানিত ও হয়রানি করা হচ্ছে। তাদের অধিকার, বেতন কাঠামো ওয়েজবোর্ড নিয়ে তামাশা করা হচ্ছে।’

আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অর্থমন্ত্রীকে জাতির কাছে, সাংবাদিক সমাজের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে, উল্লেখ করে সাংবাদিক এ নেতা বলেন, ‘আপত্তিকর, অসংবিধানিক বক্তব্য প্রত্যাহার করতে হবে। যতক্ষণ পর্যন্ত নবম ওয়েজ ঘোষণা করা না হবে, ততক্ষণ পর্যন্ত অর্থমন্ত্রী ও তথ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আন্দোলন চলবে।’ এসময় তিনি ওয়েজবোর্ড নিয়ে আশার বাণী শোনানোয় সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে ধন্যবাদ জানান।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবিধানিক ইউনিয়নের মহাসচিব ওমর ফারুক বলেন, ‘১৫ আগস্ট পর্যন্ত তথ্যমন্ত্রীকে আল্টিমেটাম দিয়েছি, এর মধ্যে ওয়েজবোর্ড ঘোষণা করতে হবে। ১৫ আগস্টের আগে কর্মসূচি দিবো না বলে ঘোষণা দিয়েছিলাম। কিন্তু হঠাৎ করে তথ্যমন্ত্রীর প্ররোচনায় অর্থমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন, অপমানজনক কথা বলেছেন। তাই আজ ঢাকাসহ সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করতে হচ্ছে।’

ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটির সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন বাদশা বলেন, ‘নবম ওয়েজবোর্ডের দাবিতে আমরা দীর্ঘদিন ধরে রাজপথে নেমেছি। অর্থমন্ত্রী ও তথ্যমন্ত্রী নোয়াবের কয়েকজন সদস্যের সঙ্গে বৈঠক করলেন আর সাংবাদিকেদের প্রতি বিষোদগার করলেন। আমাদের দাবি উপেক্ষা করে অর্থমন্ত্রী বলেছেন, সাংবাদিকদের ওয়েজবোর্ডের প্রয়োজন নেই। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’

এদিকে শুধু টিভি বা সংবাদপত্রের জন্য নয় একই সঙ্গে অনলাইন পাত্রিকাকে নবম ওয়েজ বোর্ডে সম্পৃক্ত করার আশা প্রকাশ করেন বক্তারা।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সভাপতি শাবান মাহমুদের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম মহাসচিব অমিয় ঘটক পুলক, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী প্রমুখ।

/আরএআর/এমও/

লাইভ

টপ
x