অর্থনৈতিক কারণে এশিয়াতে বরাবরই আগ্রহ আমেরিকার

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:২৪, নভেম্বর ১৬, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৩০, নভেম্বর ১৬, ২০১৭

এশিয়ার রাজনীতিতে আমেরিকার প্রভাব এবং প্রতি প্রভাব নিয়ে ‘আমেরিকা: এশিয়া’স সেটিং সান’ শিরোনামের একটি আলোচনা অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা লিট ফেস্ট-২০১৭ এর প্রথম দিনের শেষ বিকেলে। সেশনটি সঞ্চালনা করেন ঢাকা ট্রিবিউন সম্পাদক জাফর সোবহান এবং আলোচনায় অংশ নেন ডমিনিক জিগলার, ভিক্টর ম্যালে, লরেন্স অসবোর্, এবং জেফ কিংসটন।

আলোচনায় ঘুরেফিরে আমেরিকার অর্থনৈতিক  ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং ট্রাম্প প্রশাসনের ভূমিকা উঠে আসে। এ প্রসঙ্গে ঢাকা ট্রিবিউনের সম্পাদক জাফর সোবহান মন্তব্য করেন, আমেরিকা যেরকম প্রেসিডেন্ট এতদিন দেখেছে ট্রাম্প তার থেকে ব্যতিক্রম এবং তিনি ভিন্ন ধরনের একজন রাজনৈতিক। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে শেষপর্যন্ত তিনি আদৌ ভিন্ন কিছু হবেন কিনা?

এমন আলোচনায় বক্তারা বলেন, ট্রাম্পের ‘মেক আমেরিকা গ্রেট এগেইন’ স্লোগানের কোনও পটভূমি নেই। এবং এ প্রসঙ্গে তার কার্যকর কোনো কর্মপদ্ধতিরও দেখা মিলছে না। একই সঙ্গে এশিয়ার রাজনীতির গুরুত্বপূর্ণ প্রেক্ষাপটও তুলে ধরেন তারা। আন্তর্জাতিক সূচকে চীন, জাপান অনেক এগিয়ে এবং তাদের রাজনৈতিক চেতনা দ্বারা বহির্বিশ্ব অনুপ্রাণিত হচ্ছে। আবার অল্পকিছু রাষ্ট্র বাদ দিলে সমগ্র এশিয়াতে সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতাও সুবিধাজনক অবস্থানে নেই বলে তারা মন্তব্য করেন।

আলোচকদের বক্তব্যে এটিই উঠে আসে যে আমেরিকা যেমনই হোক না কেনও এশিয়ার অর্থনীতিতে তাদের আগ্রহ বরাবরের।

 

এফএএন

লাইভ

টপ