৩ পৌরসভায় আ.লীগ, একটিতে বিএনপির প্রার্থী জয়ী

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৫:২৩, মার্চ ৩০, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ০৬:০৯, মার্চ ৩০, ২০১৮

দেশের কয়েকটি পৌরসভায় বৃহস্পতিবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হয়। এরপর বিভিন্ন স্থানে বেসরকারিভাবে ফল ঘোষণা করা হয়। পৌরসভাগুলোর মধ্যে তিনটিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এবং একটিতে বিএনপির প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

পৌর নির্বাচননাজিরহাট পৌরসভায় বিএনপির প্রার্থীর জয়

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি জানান, ফটিকছড়ি উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভা নির্বাচনে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী এস.এম সিরাজ উদ দৌলা। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে রিটার্নিং কর্মকর্তা মনির হোসাইন এ ফল ঘোষণা করেন।

সিরাজ উদ দৌলা তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী মজিবুল হকের চেয়ে ৪ হাজার ৯৮৯ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। ধানের শীষ প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৯ হাজার ৫৮২ ভোট। অন্যদিকে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মজিবুল হক পেয়েছেন ৪ হাজার ৫৯৩ ভোট।

অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী এম. হায়াত জগ প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৭৩০ ভোট, মোবাইল ফোন প্রতীকের আলী আজম ছাদেক ৩ হাজার ২৬২, নারকেল গাছ প্রতীকের আনোয়ার পাশা ২ হাজার ৩২৬ ভোট এবং ফুলের মালা প্রতীকে তরিকত ফেডারেশনের প্রার্থী শাহজালাল পেয়েছেন ৭৯৬ ভোট।

রির্টারিং অফিসার মুনির হোসাইন জানান, ৪০ হাজার ভোটারের মধ্যে ২৫ হাজার ৯২ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। যা মোট মোট ভোটারের ৬২ শতাংশ। বাতিল হয়েছে ৭২৭ ভোট।

নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে নির্বাচিত হয়েছেন, ১ নম্বর ওয়ার্ডে ছৈয়দ মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন, ২ নম্বর ওয়ার্ডে মোহাম্মদ আমান উল্লাহ, ৩ নম্বরে মুহাম্মদ হারুন, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে মোহাম্মদ মহিন উদ্দীন, ৫ নম্বরে এস এম আবুল মনছুর, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে মুহাম্মদ ইয়াকুব, ৭ নম্বরে মো. ইসমাইল, ৮ নম্বরে মো. আলী, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে মো. সোলেমান। সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে, ১ নম্বর ওর্য়াডে ছলিমা আকতার, ২ নম্বর ওয়ার্ডে রেজিয়া বেগম এবং ৩ নম্বর ওয়ার্ডে আয়েশা আকতার নির্বাচিত হয়েছেন।

খায়রুল আলম ভূইয়াহালুয়াঘাট পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীর জয়

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহ জেলার সবশেষ গঠিত হালুয়াঘাট পৌরসভার প্রথম নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী খায়রুল আলম ভূইয়া নৌকা প্রতীকে ৩ হাজার ৮৩৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আব্দুল হামিদ (ধানের শীষ) পেয়েছেন ৩ হাজার ৫১ ভোট। হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকির হোসেন বেসরকারিভাবে এই ফলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

২০১৪ সালের ২০ জানুয়ারি হালুয়াঘাট উপজেলা সদরকে পৌরসভা ঘোষণা করা হয়। পৌরসভা হলেও ৪ বছরেও এর নির্বাচন হয়নি। এটিই প্রথম নির্বাচন।  ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত হালুয়াঘাট পৌরসভার মোট ভোটার সংখ্যা ১৪ হাজার ৪২৭জন।

নূর-এ-আলম সিদ্দিকীএলেঙ্গা পৌরসভায় নৌকার বিজয়

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি জানান, টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে বর্তমান মেয়রের ধানের শীষকে তিনে রেখে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নূর-এ-আলম সিদ্দিকী ১৪ হাজার ১৬৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী নারিকেল গাছ প্রতীকে সাবেক চেয়ারম্যান এসএম শফিকুল ইসলাম সাফি তালুকদার ৫ হাজার ৫৫৭ ভোট পেয়েছেন। ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির প্রার্থী বর্তমান মেয়র শাফি খান ৫ হাজার ৪৭৪ ভোট পান। ভোট পড়ে প্রায় ৮৬ শতাংশ। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩২ জন এবং তিনটি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

২০১১ সালে এলেঙ্গাকে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে পৌরসভায় উন্নীত করা হয়। ২০১৩ সালে নির্বাচনে প্রথম মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হন বিএনপি নেতা শাফী খান।

নাদের বখতসুনামগঞ্জে মেয়র হলেন নাদের বখ্ত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি  জানান, সুনামগঞ্জ পৌরসভায় মেয়র পদে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের নাদের বখ্ত জয়ী হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাতে বেসরকারিভাবে এ ফল ঘোষণা করেন জেলা নিবাচনি কর্মকর্তা আব্দুল মোতালেব।

আওয়ামী লীগের নাদের বখত নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৬ হাজার ৩৫২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান গণিউল সালাদীন মোবাইল ফোন প্রতীকে পেয়েছেন ৯ হাজার ৪৮৫ ভোট। বিএনপির দেওয়ান সাজাউর রাজা চৌধুরী সুমন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১ হাজার ৮০৭ ভোট।  

গত ১ ফেব্রুয়ারি সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আয়ূব বখত জগলুল মৃত্যুবরণ করায় এ উপনির্বাচন হয়।

 

/এএম/

লাইভ

টপ