তারা নির্বাচনকে লাল কার্ড দেখিয়েছেন, আমাকে নয়: নুর

Send
উদিসা ইসলাম
প্রকাশিত : ১৮:৪৮, মার্চ ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৪, মার্চ ২৩, ২০১৯





শিক্ষার্থীদের মনোভাব বুঝে দায়িত্ব নেওয়ার কথা বললেও এর কোনও ব্যাখ্যা দিতে পারেননি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহসভাপতি নুরুল হক নুর। শনিবার (২৩ মার্চ) ডাকসুর প্রথম সভা শেষে বাংলা ট্রিবিউনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি অবশ্য দাবি করেন, শিক্ষার্থীরা চেয়েছেন বলেই তিনি দায়িত্ব নিয়েছেন। লালকার্ড প্রদর্শনের ব্যাপারে নুর বলেন, ‘তারা নির্বাচনকে লালকার্ড দেখিয়েছেন, আমাকে নয়।’
শিক্ষার্থীদের মনোভাব বুঝলেন কী করে— এমন প্রশ্নের উওর এড়িয়ে নুরুল হক ‘শিক্ষার্থীরা না চাইলে দায়িত্ব নিতাম না’, ‘আমি তো তাদের কথাই বলছি’, এমনকি ‘শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো বলাটাই তাদের মনোভাব বুঝে নেওয়ার মতো’—এমন নানা কথা বলে ব্যাখ্যা দিতে চেষ্টা করেন।
গত ১৯ মার্চ সাধারণ শিক্ষার্থীদের মনোভাব বুঝে দায়িত্ব নেবেন বলে সাংবাদিকদের জানান নুর। ডাকসুর ভিপি হিসেবে দায়িত্ব নেবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে নুরুল হক নুর তখন সাংবাদিকদের বলেন, ‘সাধারণ শিক্ষার্থীদের মনোভাব বুঝতে অসুস্থ থাকা সত্ত্বেও আমি ক্যাম্পাসে এসেছি। তারা যদি বলেন আমাকে দায়িত্ব নিতে, তাহলে আমি দায়িত্ব নেবো।’
শিক্ষার্থীদের মনোভাব বুঝে ভিপির দায়িত্ব নেবেন বলেছিলেন, এখন আপনি তো দায়িত্ব নিলেন, শিক্ষার্থীদের মনোভাব বুঝলেন কীভাবে? এমন প্রশ্নের জবাবে নুর বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘২৮ বছর ধরে ডাকসু না হওয়ায় পেশিশক্তিনির্ভর অপরাজনীতির বিকাশ ঘটেছে, শিক্ষার্থীরা এর অবসান চান এবং তারা চান নির্বাচন বিতর্কিত হলেও প্রতিবাদ হবে দায়িত্বের জায়গা থেকেই।’ তিনি বলেন, ‘প্রথমদিনের সভায় আমি বলে এসেছি, পুনর্নির্বাচন হওয়া উচিত। গত নির্বাচন বিতর্কিত ছিল, এমন নির্বাচনের পরিচয় আমরাও দিতে চাই না, দ্রুততম সময়ে নির্বাচন দেওয়া দাবি শিক্ষার্থীদের, তাদের সঙ্গে আমিও একমত।’
কাঙ্ক্ষিত জবাব না পাওয়ায় শিক্ষার্থীদের মনোভাব বুঝে দায়িত্ব নেওয়ার বিষয়ে পুনরায় প্রশ্ন করা হলে নুর বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা নিশ্চয়ই চেয়েছেন, না চাইলেতো দায়িত্ব নিতাম না। তাদের কথাগুলোই আমি বলছি। পুনর্নির্বাচন, রাজনৈতিক বিবেচনায় সিট দেওয়া বন্ধ করা এসব তাদেরই কথা। হলগুলো রাজনৈতিক ছত্রছায়া বহিরাগত থাকে, মেধার ভিত্তিতে যেন সিট পায়— এগুলো দ্রুত যেন শুরু হয়। আজ আমি এসব কথা বলেছি।’
কিন্তু শিক্ষার্থীরা চাননি বলেই তো তারা আপনাকে আজ লালকার্ড দেখিয়েছেন। নূর বলেন, ‘নানা মানুষ নানা মত এবং মতবিরোধ থাকবে, এটা স্বাভাবিক। তারা আমাকে লালকার্ড দেখাননি, নির্বাচনের প্রতি লালকার্ড দেখিয়েছেন। এই ডাকসু যেহেতু বহাল সেহেতু পুনর্নির্বাচন হওয়ার আগপর্যন্ত আমি আমার জায়গা থেকে কথা বলবো, সেজন্য আমি দায়িত্ব নিয়েছি।’
যদিও লালকার্ড ডাকসুর সব সদস্যকেই দেখানো হয়েছে বলে আন্দোলনকারীরা জানিয়েছেন। ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি জি এম জিলানী শুভ বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে৷ এই অনিয়ম ও কারচুপির নির্বাচনকে যারা বৈধতা দিয়েছেন আমরা তাদের লালকার্ড প্রদর্শন করে ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করছি৷’
নুরুল হক নুরের দায়িত্ব নেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘দায়িত্বগ্রহণ করার মধ্য দিয়ে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন৷’

/এইচআই/

লাইভ

টপ