বিইউপি’র ড্রেস কোড

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:১৬, এপ্রিল ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:২২, এপ্রিল ১৬, ২০১৯

বিইউপি

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস-বিইউপির তাদের শিক্ষার্থীদের জন্য ড্রেস কোড নির্ধারণ করে দিয়েছে। ড্রেস কোড নির্ধারণের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির ওয়েব সাইটে দেওয়া কোড অব কন্ডাক্টে বলা হয়েছে— শিক্ষার্থীদের এমনভাবে পোশাক পরিধান করা উচিত, যাতে তাকে দেখে একজন  প্রফেশনাল বা এক্সিকিউটিভ হিসেবে ধারণা করা যায়।

কোড অব কন্ডাক্টের চার নম্বর পৃষ্ঠায় ছেলেদের গ্রীষ্মকালীন ড্রেস সম্পর্কে বলা হয়েছে— রুচিশীল রঙয়ের প্যান্ট, কলার যুক্ত ফুলহাতা শার্ট— যা প্যান্টের ভেতরে ইন করা থাকতে হবে। যথাযথ বেল্ট, যথাযথ জুতা, স্যুট অথবা ব্লেজার (গ্রীষ্মকালে ঐচ্ছিক)পরতে হবে। আর গ্রীষ্মকালে মেয়েদের জন্য রুচিশীল কলার যুক্ত কামিজ, সালোয়ারের পরিবর্তে ট্রাউজার, কিংবা প্যান্টের সঙ্গে কামিজ যথাযথ ওড়নাসহ পড়তে হবে। এছাড়া, শাড়ি পরার কথাও সেখানে উল্লেখ আছে।

শীতকালীন পোশাক হিসেবে ছেলেদের জন্য নির্দেশনা আছে— রুচিশীল রঙয়ের ট্রাউজার অথবা প্যান্ট। কলার যুক্ত শার্ট— যা প্যান্টের ভেতরে ইন অবস্থায় থাকবে। স্যুট, ব্লেজার অথবা রুচিশীল রঙয়ের জ্যাকেট, অথবা সোয়েটার পরা যাবে। এছাড়া, যথাযথ বেল্ট, টাই (ঐচ্ছিক) এবং জুতা পরতে হবে। মেয়েদের শীতকালীন পোশাক হিসেবে উল্লেখ আছে— সালোয়ার এবং কামিজ। তবে সালোয়ারের বদলে ট্রাউজার কিংবা প্যান্টের সঙ্গে কামিজ যথাযথ ওড়নাসহ পরতে হবে। এছাড়া, শাড়ি পরার কথাও উল্লেখ আছে। এছাড়া, কলার যুক্ত শার্টের সঙ্গে স্যুট, ব্লেজারও পড়া যাবে বলে বিইউপির ড্রেস কোডে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি রুচিশীল রঙয়ের জ্যাকেট, সোয়েটার, কার্ডিগান, যথাযথ জুতা ও স্যান্ডেলের কথাও উল্লেখ করা আছে।

পোশাক ছাড়াও কোড অব কন্ডাক্টে গয়না পরিধানের বিষয়েও নির্দেশনা দেওয়া আছে। এতে বলা হয়েছে— পোশাকের সঙ্গে আনুষঙ্গিক জিনিসপত্র মার্জিত হতে হবে। মিনিমাম জুয়েলারি পরা যাবে, কিন্তু তাও রুচিশীল হতে হবে।

এছাড়া, প্রসাধনী ও সুগন্ধি ব্যবহারের বিষয়ে বলা আছে— ‘স্মার্ট মেকআপ’ করলে কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু অতিরিক্ত প্রসাধনী  কিংবা সুগন্ধির ব্যবহার অনাকাঙ্ক্ষিত। কারণ, অতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে এলার্জির সমস্যা হতে পারে। তাই, এসব পরিমিত ব্যবহার করা উচিত।

কোড অব কন্ডাক্টের পাঁচ নম্বর পৃষ্ঠায় ‘কী কী পোশাক পরা যাবে না’ সে বিষয়ে উল্লেখ করা হয়েছে। এ সম্পর্কিত নির্দেশনায় বলা হয়েছে— ছেড়া টিশার্ট বা ফেডেড টিশার্ট, স্লিভলেস কামিজ অথবা ব্লাউজ, সোয়েটার শার্ট বা প্যান্ট, লেগিংস, স্ট্রেচ প্যান্ট, ছেড়া প্যান্ট, ছিদ্রযুক্ত প্যান্ট এবং রঙ জ্বলা (ফেডেড) প্যান্ট এবং সব ধরনের স্কার্ট পরা যাবে না। এছাড়া, জিন্স কিংবা চামড়ার প্যান্ট অথবা স্কার্ট পড়া যাবে না। ফ্লিপ ফ্লপ, স্লিপার, দৌড়ানোর জন্য ব্যবহৃত জুতা (কেডস), কিংবা হাইকিং জুতা পরা যাবে না। হাফ প্যান্ট, থ্রি কোয়াটার প্যান্টসহ যে কোনও অভদ্র পোশাক পরার বিষয়ে  কোড অব কন্ডাক্টে বিধিনিষেধ উল্লেখ করা আছে।

/এসও/এপিএইচ/

লাইভ

টপ