ভারতীয়দের রি-অ্যাকশন বেশি হয়ে গেছে: ফেরদৌস প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:৪৬, এপ্রিল ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:৩১, এপ্রিল ১৮, ২০১৯

ফেরদৌস (ফাইল ছবি)

ভারতের জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি রাজনৈতিক দলের পক্ষে জনপ্রিয় চলচ্চিত্র নায়ক ফেরদৌস নির্বাচনি প্রচারণায় অংশ নেওয়াকে দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন। তবে একইসঙ্গে এ ঘটনায় ভারতীয়রা যে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে তাও ‘একটু বেশি হয়ে গেছে’ বলে মন্তব্য করেন তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আজ বুধবার (১৭ এপ্রিল) রাতে হোটেল সোনারগাঁওয়ে কনস্যুলার কর্প অফ বাংলাদেশ আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার আগে বলেন, ‘উনি (ফেরদৌস) তার বন্ধুর জন্য গিয়ে ক্যাম্পেইন করেছেন। তবে সেটি দুঃখজনক।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমিও গিয়েছিলাম ইলেকশনের কয়েক মাস আগে কিন্তু আমরা নির্বাচন নিয়ে কোনও কথা বলিনি।’

ফেরদৌসের এই প্রচারণার বিষয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দেশটির নির্বাচন কমিশনে ও কলকাতার রায়গঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দফতরে আপত্তিও জানানো হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই প্রতিক্রিয়ার বিষয়ে বলেন, ভারতীয়রা ’এত স্ট্রং রি-অ্যাক্ট করেছে ( তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে) তাও আমার কাছে বেশি লাগলো। রি-অ্যাকশনটা একটু বেশি হয়ে গেছে।’

ফেরদৌসের এই প্রচারণা নিয়ে ভারতে তোলপাড় শুরু হওয়ার পরে মঙ্গলবার রাতে ঢাকা ফেরত আসেন দুই বাংলা জনপ্রিয় এই নায়ক।

ভারতীয়রা এ বিষয়ে সরকারকে কিছু জানায়নি বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘আমরা এটা নিয়ে কোনও চিন্তা করিনি, কোনও আলোচনা করিনি। এটি এখনও আলাপ করি নাই, এটা নিয়ে আলোচনা করবো, দেখি।’

এদিকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তার সঙ্গে এ বিষয়ে আলাপ করতে গেলে সবাই বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, ‘এটা কীভাবে সম্ভব!’

একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘এটা একটা বোকার মতো কাজ হয়েছে।’

সোনারগাঁওয়ে কনস্যুলার কর্প অফ বাংলাদেশ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার বাংলা ট্রিবিউন থেকে ভারতে বাংলাদেশের একটি মিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করলে এক কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা বিব্রত। বিষয়টি আমাদের ধারণার বাইরে ছিল। ফেরদৌস দূতাবাসকে না জানিয়ে একটি দলের পক্ষে রাজনৈতিক প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন।’

উল্লেখ্য, গত রবিবার ও সোমবার (১৪ ও ১৫ এপ্রিল) পশ্চিমবঙ্গের রায়গঞ্জ লোকসভা আসনের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালের পক্ষে নির্বাচনি প্রচারণায় অংশ নেন বাংলাদেশ ও ভারতে সমান জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ফেরদৌস। টালিগঞ্জের দুই তারকা অঙ্কুশ ও পায়েল সরকারের সঙ্গে হুডখোলা গাড়িতে চেপে ওই নেতার পক্ষে রোড শোতে অংশ নেন তিনি। করণদীঘি, হেমতাবাদ, ইসলামপুর-সহ ওই কেন্দ্রের নানা জায়গায় ফেরদৌসকে একবার চোখের দেখা দেখতে রীতিমতো ভিড়ও উপচে পড়েছিল। এসময় বিভিন্ন পথসভায় তৃণমূল প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ফেরদৌস। সেই ছবি ও রোড শো-র ভিডিও ইতোমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।

এরপরই একজন বিদেশি নাগরিক কীভাবে ভারতের সাধারণ নির্বাচনের প্রচারণায় অংশ নিতে পারেন, এই প্রশ্ন তুলেছে রাজ্যের বিরোধী দল বিজেপি।

তবে কানাইলায়াল আগারওয়ালকে ফোন করে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তার হয়ে কে ভোট চাইছে সে বিষয়ে তিনি অবগত নন বলে জানান।

প্রসঙ্গত: বাংলাদেশে মডেলিং করলেও ফেরদৌসের নায়ক হয়ে ওঠা টালিউডের ‘হঠাৎ বৃষ্টি’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে। ওই ছবিতে গড়ে ওঠা রোমান্টিক ইমেজ দিয়ে দুই বাংলায় সমান পরিচিত ও জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তিনি। বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতেও অনেকগুলো সিনেমায় নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তিনি। বছর দুয়েক আগে কলকাতায় সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘ইয়েতি অভিযান’ চলচ্চিত্রেও তাকে দেখা গেছে।

আরও পড়ুন: ভারতে নির্বাচনি প্রচারণায় অংশ নেওয়া ছিল আমার ভুল: ফেরদৌস

 

 

/এসএসজেড/টিএন/

লাইভ

টপ