হত্যার পর স্ত্রীর লাশে আগুন, স্বামীর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:৪৩, এপ্রিল ১৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২৭, এপ্রিল ১৮, ২০১৯





আদালতরাজধানী মুগদার ব্যাংক কলোনির বাসায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর লাশে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগে দায়ের মামলায় স্বামী কমল হোসেন (৩০) আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।


বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আসামির স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণের আবেদন করেন। এ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক মো. মিল্লাত হোসেন জবানবন্দি গ্রহণ করে আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
সংশ্লিষ্ট আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) আশরাফ আলী বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
গতকাল বুধবার রাজধানীর দক্ষিণ মুগদার ব্যাংক কলোনির ভাড়া বাসায় স্ত্রী হাসি বেগমকে কমল গলা টিপে হত্যা করে বলে অভিযোগ ওঠে। এ হত্যাকাণ্ডের আলামত মুছে ফেলতে লাশে কেরোসিন দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় সে।
জানা গেছে, হাসি ও কমল দুজনেরই দ্বিতীয় বিয়ে এটি। বিচ্ছেদের পর প্রথম স্বামী সুজনের সঙ্গে হাসির যোগাযোগ ছিল বলে আটকের পর দাবি করে কমল। এ নিয়ে হাসি ও কমলের মধ্যে দাম্পত্য কলহ ছিল।
এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মুগদা থানায় মামলা করেন হাসির বাবা শেখ আলতাফ ঢালি। পরে মুগদা থানা পুলিশ কমল হোসেনকে গ্রেফতার করে।

আরও পড়ুন...
স্ত্রীকে হত্যার পর গায়ে আগুন দেওয়ার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

 

/টিএইচ/এইচআই/

লাইভ

টপ