নির্মাণকাজে অনিয়মের অভিযোগে তিন জেলায় দুদকের অভিযান

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৪৮, এপ্রিল ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫২, এপ্রিল ২১, ২০১৯

দুদকতিনটি নির্মাণকাজে অনিয়মের অভিযোগে পৃথক অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন-১০৬) বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ পাওয়ার পর রবিবার (২১ এপ্রিল) এসব অভিযান চালানো হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দুদক উপপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য।

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জে পল্লী বিদ্যুৎ অফিস এবং নাটোরের বড়াইগ্রামে বড়াল নদীর ব্রিজ নির্মাণ কার্যক্রমে অনিয়মের অভিযোগে এসব পৃথক অভিযান চালায় দুদক।

দুদক জানায়, কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগে অভিযান চালায় দুদকের রংপুর জেলা কার্যালয়ের একটি টিম। ওই টিম স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি থাকা রোগী এবং তাদের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে। এ সময় তারা অভিযোগ করেন, হাসপাতালে নার্স এবং অন্য কর্মচারীরা রোগীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। সেবা প্রদানের দিকে খেয়াল নেই তাদের। আর খাবারের মানও নিম্নমানের। দুদক টিম, খাবারের মান পরীক্ষা করতে স্বাস্থ্যকেন্দ্রের রান্নাঘর পরিদর্শন করে। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার প্রস্তুত করে তা রোগীদের সরবরাহের বিষয়টি নিশ্চিত হয় তারা। দুদক টিম বিষয়টি জেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে জানায়। তিনি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

পল্লী বিদ্যুতের বৈদ্যুতিক খুঁটি স্থাপনে অনিয়ম, দুর্নীতির বিষয়ে জানতে বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জে নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নে অভিযান চালায় দুদক। এ সময় ১৩ নম্বর নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুর রহিম বাচ্চুর বিরুদ্ধে  বৈদ্যুতিক খুঁটি স্থাপনে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা নেওয়ার অভিযোগ পায় দুদক টিম।

নাটোরের বড়াইগ্রামে বড়াল নদীর ব্রিজ নির্মাণ কার্যক্রমে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান চালায় দুদকের এনফোর্সমেন্ট টিম। বড়াল নদীতে ৫৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ১২ মিটার দীর্ঘ ব্রিজ নির্মাণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগে এলাকাবাসী এরই মধ্যে নির্মাণকাজ বন্ধ করে দিয়েছে।

 

/ডিএস/এমএএ/

লাইভ

টপ