বাড্ডায় গণপিটুনিতে নারী হত্যার ঘটনায় আরও দুজন গ্রেফতার

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০১:০৫, জুলাই ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:১০, জুলাই ২৩, ২০১৯

গ্রেফতাররাজধানীর বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে তাছলিমা বেগম রেনু (৪০) নামের এক নারীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় আরও দুই জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (২২ জুলাই) রাতে বাড্ডা এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। তারা হলো- কামাল ও আবুল কালাম আজাদ।

এর আগে গ্রেফতার চার জনের মধ্যে একজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকি তিনজনের চারদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বাড্ডা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, গণপিটুনির ঘটনায় সোমবার রাতে কামাল ও আবুল কালাম আজাদ নামে আরও দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) তাদেরকে আদালতে পাঠানো হবে।

ওসি বলেন, ‘গণপিটুনির ঘটনায় মোবাইলে ধারণ করা একটি ফুটেজ দেখে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জড়িত অন্যদেরকেও শনাক্ত করে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

২০ জুলাই সকালে রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় মেয়েকে ভর্তি করানোর তথ্য জানতে স্থানীয় একটি স্কুলে যান মা তাসলিমা বেগম রেনু। এ সময় তাকে ছেলেধরা সন্দেহে প্রধান শিক্ষকের রুম থেকে টেনে বের করে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই বাড্ডা থানায় অজ্ঞাত ৪শ-৫শ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন নিহতের ভাগিনা নাসির উদ্দিন।

২১ জুলাই রাতে জাফর, শাহীন ও বাপ্পী নামে তিনজন এবং ২২ জুলাই সকালে বাচ্চু নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার চারজনকে ২২ জুলাই আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। এর পরিপ্রেক্ষিতে তিন জনের চারদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। গ্রেফতার জাফর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবনরদি দেওয়ার পর তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

আরও খবর...


বাড্ডায় গণপিটুনিতে হত্যার ঘটনায় ৩ জনের ৪ দিনের রিমান্ড

 

/আরজে/এনআই/

লাইভ

টপ