বাড্ডায় গণপিটুনিতে রেণুকে হত্যা: হৃদয় সন্দেহে তরুণ আটক

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২১:০০, জুলাই ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৪৭, জুলাই ২৩, ২০১৯

ফেসবুকে ভাইরাল ভিডিও’তে দেখা যায়, লাঠি দিয়ে রেণুকে পেটান হৃদয়রাজধানীর বাড্ডায় গণপিটুনিতে তাসলিমা বেগম রেণুকে হত্যা মামলার প্রধান আসামি হৃদয় সন্দেহে এক তরুণকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) বিকালে গুলিস্তানের গোলাপ শাহ মাজারের সামনে থেকে তাকে আটক করে গুলিস্তান পুলিশ ফাঁড়িতে সোপর্দ করেন কয়েকজন।

শাহবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আরিফুর রহমান সরদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘লোকজন একটি ছেলেকে বাড্ডার হৃদয় সন্দেহে ধরে এবং পুলিশের কাছে তুলে দেয়। তাকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তার পরিবারের সদস্যদের খবর দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে বাড্ডা থানাকেও অবহিত করা হয়েছে। বাড্ডা থানা অনুসন্ধান করে দেখবে এই ছেলে আসামি হৃদয় কিনা।’
শাহবাগ থানার ডিউটি অফিসার এস আই মো. সাগর বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই তরুণকে বাড্ডা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। তারা (বাড্ডা থানা পুলিশ) বিষয়টি দেখছে।

এদিকে, বাড্ডা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, আটক তরুণ আসামি হৃদয় কিনা, এ ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বাড্ডা থানার পরিদর্শক (অপারেশন) ইয়াছিন গাজী বলেন, ‘আটক তরুণ দাবি করেছেন তার নাম আল-আমিন। বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি।’

উল্লেখ্য, গত শনিবার (২০ জুলাই) সকালে রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেণুকে পিটিয়ে হত্যা করে বিক্ষুব্ধ জনতা। ওইদিন সকাল পৌনে ৯টার দিকে উত্তর বাড্ডা কাঁচাবাজার সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৪-৫শ’ জনকে আসামি করে একটি মামলা করা হয়েছে। ওই মামলার প্রধান আসামি হৃদয়।

আরও পড়ুন– 

এমন নির্মমতা মানতে পারছেন না কেউ

/এসজেএ/এমএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ