নোয়াখালী সিজেএম আদালতের পেশকারসহ ৩ জনকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:০৮, আগস্ট ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০৯, আগস্ট ১৯, ২০১৯



হাইকোর্টঅবৈধ সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচার মামলায় নোয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (সিজেএম) আদালতের পেশকার নাজমুন নাহারসহ ৩ জনকে আগামী ৪ সপ্তাহের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।
এ-সংক্রান্ত এক জামিন আবেদনের শুনানি শেষে সোমবার (১৯ আগস্ট) বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
নাজমুন নাহার ছাড়া বাকি আসামিরা হলেন বিজন ভৌমিক, আফরোজা আক্তার ও জেলা জজ আদালতের নাজির আলমগীর হোসেন। এদের মধ্যে নাজমুন নাহার ও আলমগীর স্বামী-স্ত্রী এবং আফরোজা হলেন আলমগীরের বোন।
আদালতে আসামিপক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী হাসিনা জাহান হাজারী। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. আসিফ হাসান। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।
মামলার এজাহারে বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত মোট ৭ কোটি ১৭ লাখ ৩৫ হাজার ৬২৫ টাকার সম্পত্তি অর্জন করেন। এ ছাড়া ভুয়া প্রতিষ্ঠান মেসার্স ঐশী ট্রেডার্সের ব্যবসার আড়ালে মোট ২৭ কোটি ৮২ লাখ ৭২ হাজার ৯৬৬ টাকা অবৈধভাবে স্থানান্তর, হস্তান্তর ও রূপান্তর করেন তারা।
গত ৫ আগস্ট অবৈধ সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচার মামলায় দুর্নীতি দমন কমিশনের নোয়াখালীর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুবেল আহমেদ নোয়াখালী জেলা জজ আদালতের নাজির আলমগীর হোসেনসহ এই ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।
এ মামলা দায়েরের দিনই দুদকের হাতে গ্রেফতার হন আলমগীর। তবে সেদিনই নোয়াখালীর আদালত থেকে তিনি জামিন পান।
এরপর মামলার অপর ৩ আসামি নাজমুন নাহার, আফরোজা আক্তার ও বিজন ভৌমিক হাইকোর্টে জামিন আবেদন করলে আদালত তাতে সাড়া না দিয়ে ৪ সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিলেন।

/বিআই/এইচআই/

লাইভ

টপ